স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বুলবুল-এ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা ঘুরে দেখার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে হাই পাওয়ার কমিটি গড়ার অনুরোধ জানালেন লোকসভার বিরোধী দলনেতা অধীর চৌধুরী। বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি দিয়ে বুলবুল-এ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার মানুষের দুর্দশার কথা ব্যাখ্যা করেছেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে অধীর চৌধুরীর এই চিঠির পরই প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি এক্ষেত্রে রাজ্যের ভূমিকায় সন্দেহ প্রকাশ করছেন বহরমপুরের সাংসদ? তবে এব্যাপারে সরাসরি রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ চিঠিতে উল্লেখ করেননি অধীর চৌধুরী।

উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উপকূলবর্তী জেলাগুলি। লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে দুই চব্বিশ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরের বিস্তীর্ণ এলাকা। বহু মানুষের বাড়িঘর ভেঙে গিয়েছে৷ জলের তলায় চলে গিয়েছে চাষের জমি৷

বুলবুলের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ নয়টি জেলার জেলাশাসকদের কাছ থেকে নবান্নে যে প্রাথমিক রিপোর্ট এসে পৌঁছেছে তাতে বলা হয়েছে, নয় জেলায় তিন লক্ষের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সাত হাজারের বেশি বাড়ি। মোবাইল টাওয়ার ভেঙে পড়েছে ৯৫০টি। গাছ ভেঙেছে নয় হাজার। তিনজনের মৃত‍্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

গত সোমবার আকাশপথে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বুলবুল বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবারও তিনি আকাশপথে বসিরহাটের বুলবুল বিধ্বস্ত এলাকা ঘুরে দেখেছেন৷ দুই জায়গাতেই প্রশাসনিক বৈঠক করেছেন৷ প্রশাসনিক কর্তাদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বিপর্যস্তদের হাতে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বুলবুল নিয়ে রাজ্যের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়৷