স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মাধ্যমিক পরীক্ষায় পর পর ছদিন প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানালেন প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী৷ তিনি বলেন, এই প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে একটা বড় চক্র জড়িয়ে রয়েছে৷ সিআইডি তদন্ত হলে সেটা ধরা সম্ভব নয়৷

এবছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রথম দিন থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। ছ’টি বিষয় যথাক্রমে বাংলা, ইংরাজি, ইতিহাস, ভূগোল, অঙ্ক এবং ভৌত বিজ্ঞান পরীক্ষা চলাকালীনই প্রশ্নপত্র বাইরে চলে এসেছে বলে অভিযোগ।

শুধু তাই নয়, হোয়াটসঅ্যাপে যেসব প্রশ্নপত্রগুলি ঘুরেছিল, পরীক্ষা শেষে দেখা গিয়েছিল সেগুলিই আসল প্রশ্নপত্র।সিআইডি গ্রেফতারি, গণ্ডগোল এড়াতে নানান কড়া পদক্ষেপ সত্ত্বেও প্রশ্নপত্র ফাঁস আটকানো যায়নি৷এখনও পর্যন্ত সিআইডি মোট সাতজনকে গ্রেফতার করেছে। কিন্তু সিআইডি তদন্তে ভরসা করতে পারছেন না অধীর চৌধুরী৷

বহরমপুরের সাংসদ বলেন, এর আগে তালিমলাড়ুতে এভাবে প্রশ্নপত্র ফাঁস হতে দেখা গিয়েছিল৷এরকম নয় তো যে তামিলনাড়ুর সেই লোকেরাই এখানে প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে যুক্ত৷ আর রাজ্য প্রশাসন সব জেনে চুপচাপ রয়েছে৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে অধীর বলেন, বাংলার ছাত্রছাত্রীরা আপনার থেকে জানতে চাইছে এটা কি যোগ্য সরকারের পরিচয় না ব্যর্থ সরকারের পরিচয়৷