স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের জন্য বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ পেতে এতদিন লড়াই করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সেই একই লড়াই শুরু করলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা তথা বহরমপুরের সংসদ অধীর চৌধুরী। আইন বলেই রাজ্যকে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ পাইয়ে দিতে তৎপর হয়েছেন তিনি। জানা গিয়েছে, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের অনুমতি মিললেই এই সংক্রান্ত বিল লোকসভায় আনা হবে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিতারমন।

বামফ্রন্ট সরকারের আমলে ঋণের বোঝা সামাল দিতে কেন্দ্রের কাছে লাগাতার দরবার করে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র তো বটেই, তৃণমূলের সাংসদরাও প্রথমে ইউপিএ পরে মোদি সরকারের কাছে দরবার করেছেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত বিআরজিএফ অর্থাৎ ব্যাকওয়ার্ড রিজিয়ন গ্রান্ট ফান্ড ব্যতিরেকে তেমন কোনও বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ পশ্চিমবঙ্গকে দেওয়া হয়নি বলেই তৃণমূলের অভিযোগ।

রাজনীতিতে দুজনের সাপে-নেউল সম্পর্ক হলেও রাজ্যের স্বার্থে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়ালেন অধীর চৌধুরী।

জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় আইন মোতাবেক পশ্চিমবঙ্গ বিশেষ আর্থিক সাহায্য পাবে কি না, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। রাষ্ট্রপতি অনুমতি দিলেই এই সংক্রান্ত বিল লোকসভায় আনা যাবে। এবং সেই বিল পাশ হয়ে গেলে সরকারের কাছে কোনও দরবার বা আবেদন নিবেদন নয়। আইনের অধিকারেই রাজ্য বিশেষ আর্থিক সাহায্য পাবে।

এ ব্যাপারে অধীর চৌধুরী বলেন, “তৃণমূলের সঙ্গে আমার রাজনৈতিক বিরোধ থাকতেই পারে। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে আমাদেরও অধিকার আছে। তাই কোনও সরকারের কথা ভেবে নয়, রাজ্যের বাসিন্দাদের কথা মাথায় রেখেই ভিক্ষে না চেয়ে আইনে বেঁধে বিশেষ আর্থিক সাহায্যের উদ্যোগ নিয়েছি। “