স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: অবশেষে এলাকার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবি পূরণ করল ভারতীয় রেল। বৃহস্পতিবার বালুরঘাট-হাওড়া এক্সপ্রেস ট্রেনটির পাঁচদিনের যাত্রা শুরুর অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন এলাকার সাংসদ ড: সুকান্ত মজুমদার। এতদিন ট্রেনটি সপ্তাহে দুইদিন সোম ও মঙ্গলবার হাওড়া-বালুরঘাট এর মধ্যে চলাচল করত। ট্রেনটিকে সপ্তাহে পাঁচদিন চালানোর করার ব্যাপারে এলাকার সাংসদ থেকে শুরু করে খোদ লোকসভার বিরোধী দলনেতা সকলেই দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

বিষয়টি নিয়ে সাংসদ ডঃ সুকান্ত মজুমদার ও বিরোধী দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী দুইজনেই আলাদাভাবে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গে দেখাও করেছিলেন। দীর্ঘ আন্দোলনের পর অবশেষে গত মাসে রেলভবন ট্রেনটি সপ্তাহে পাঁচদিন চালানোর অনুমোদন দেয়। তারপরেই এদিন কলকাতায় সেক্টর ফাইভে বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল হাওড়া-বালুরঘাট এক্সপ্রেসের পাঁচদিন যাত্রার শুভ সূচনা করেন। এদিকে বালুরঘাট থেকে সবুজ ঝান্ডা নাড়িয়ে ট্রেনটির যাত্রা শুরুর করান এলাকার সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। এই উপলক্ষে বালুরঘাট স্টেশনেউপস্থিত ছিলেন উত্তরপূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজারও। দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হওয়ায় এলাকার বাসিন্দাদের চরম উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গিয়েছে। এব্যাপারে সকলেই সাংসদ ডঃ সুকান্ত মজুমদারের পাশাপাশি বালুরঘাট-তুরা করিডোর কমিটির আহ্বায়ক নবকুমার দাসের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রে ইউপিএ সরকারের আমলে অধীররঞ্জন চৌধুরী রেল প্রতিমন্ত্রী থাকাকালীন প্রথম বালুরঘাট-হাওড়া এক্সপ্রেস ট্রেন চালু করেন। শুরু থেকেই ট্রেনটি সপ্তাহে দুইদিন সোম ও মঙ্গলবার রাত্রি ৮:৩০মিনিটে ছাড়ে। উল্টোদিকে হাওড়া থেকে সকাল ৭:৫০মিনিটে বালুরঘাট অভিমুখে যাত্রা করে। ট্রেনটি সপ্তাহে পাঁচদিনের দাবিতে এলাকার মানুষ ও বিভিন্ন গণসংগঠন দীর্ঘদিন ধরেই আন্দোলন চালিয়ে আসছিলেন। বালুরঘাটের সাংসদ ডঃ সুকান্ত মজুমদার রেলমন্ত্রকে দফায় দফায় দরবার করেছিলেন। অন্যদিকে এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে করিডোর কমিটির আহ্বায়ক নবকুমার দাস দিল্লি গিয়ে বিরোধী দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরীকে সাথে নিয়ে রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েলের কাছে ট্রেনটি দ্রুত পাঁচদিন করার দাবি জানিয়েছিলেন। এলাকার সাংসদ ও বিরোধী দলনেতার প্রচেষ্টাতেই রেল বোর্ড ট্রেনটি পাঁচদিন চালানোর অনুমোদন দেয়। এর পরেই নতুন রেকের সংস্থান হতেই বৃহস্পতিবার তা শুভ সূচনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারী থেকে পূর্ব নির্ধারিত সময়ে সপ্তাহে পাঁচদিন নিয়মিত চলাচল করবে বলে জানিয়েছেন সাংসদ।