স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শ্রীনগরের ডিএসপি দেবেন্দ্র সিং জঙ্গিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পরই বিজেপিকে নিশানা করলেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরী৷ একটি টুইটে তিনি লিখলেন, “দেবেন্দ্র যদি সিং না হয়ে খান হত! তাহলে আরএসএস মুসলিমদের বিরোধিতায় নেমে পড়ত। কিন্তু আমি মনে করি সন্ত্রাসের কোনও ধর্ম হয় না।”

নিজের বাড়িতে দুই জঙ্গিকে আশ্রয় দিয়েছিল দেবেন্দ্র সিং। গ্রেফতারের পর দেবেন্দ্রর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে এই তথ্য জানতে পারে পুলিশ। শ্রীনগরের বাদামিবাগ ক্যান্টনমেন্টে ছিল দেবেন্দ্র সিংয়ের কোয়ার্টার। সেখানেই হিজবুল জঙ্গিদের লুকিয়ে রেখেছিল এই পুলিশ কর্তা। সর্বক্ষণ কড়া নিরাপত্তায় মোড়া থাকত এই কোয়ার্টার। তাহলে কীভাবে সকলের চোখ এড়িয়ে দেবেন্দ্রর এমন কাণ্ড ঘটালেন তাই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

এও জানা গিয়েছে যে, ধৃত দেবেন্দ্রর পুলিশের কাছে স্বীকার করে নিয়েছে, সে জঙ্গিদের থেকে ১২ লক্ষ টাকা নিয়েছিল আশ্রয় দেওয়ার জন্য। এখন খতিয়ে দেখা হচ্ছে, উনিশের ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামার জঙ্গি হামলায় দেবেন্দ্রর কোনও যোগ ছিল কিনা। অধীর চৌধুরিও আরও একটি টুইট করে সেই প্রশ্ন তুলেছেন৷ তিনি পুলওয়ামার সিআরপিএফ কনভয়ে হওয়া জঙ্গি হামলার পুনরায় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন। তাঁর কথায়, “এত উচ্চপদস্থ একজন পুলিশ আধিকারিকের জঙ্গি যোগ নতুন প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। তাই পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলার তদন্ত নতুন করে করা উচিত।”

অধীর চৌধুরী বলেন, “দেবেন্দ্র সিংয়ের গ্রেফতারির পর একটি নতুন প্রশ্নের জন্ম হয়েছে। তাহল পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলার সময় সিকিউরিটি ইনচার্জ কে ছিল? সংসদে হামলার সঙ্গেও কী যোগ ছিল ধৃত ওই ডিএসপির ? এই বিষয়ে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কী ভাবছেন সেটাও আমরা জানতে চাই।”

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ