মুম্বই: পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন পায়েল ঘোষ নামে এক অভিনেত্রী। পায়েলের দাবি ২০১৩-১৪ সালে অনুরাগ বাড়িতে ডেকে তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছিলেন। এই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিনেত্রীর পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকেই। আবার প্রশ্ন উঠছে বলিউডে যখন এমন পরিস্থিতি, তখনই তাঁর এমন অভিযোগের পিছনে কোনও অভিসন্ধি রয়েছে কি না।

পায়েল ঘোষ অনুরাগের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ প্রথম আনেন একটি টুইটের মাধ্যমে। সেই টুইটে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে সাহায্য চান। অন্যেদিকে বরাবরই বিভিন্ন ঘটনায় মোদী সরকারের বিরোধিতা করেছেন অনুরাগ কাশ্যপ। তাই বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠছে এক সময়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরোধিতা করেছেন বলেই কি তাঁকে এমন মামলায় জড়ানো হচ্ছে?

এ বিষয়ে আবার পায়েল বলেছেন, তাঁর নির্দিষ্ট কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যোগ নেই। তবে তাঁর সমর্থনে যাঁরা কথা বলছেন তাঁদের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞ বলে জানিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় পায়েলের সমর্থনে অনেকেই কথা বলেছেন। অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত এই ঘটনায় অনুরাগের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন।

অন্যদিকে অনুরাগের কাশ্যপের বিরুদ্ধে কেন ভারসোভা পুলিশ এখনও কোনও পদক্ষেপ করছে না সেই বিষয়ে চটেছেন তিনি। পরিচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ পর্যন্ত এনেছেন পায়েল।

পায়েলের আইনজীবী বলছেন, প্রত্যেকদিন ভারসোভা পুলিশ অভিযোগকারিনীকে বয়ান নেওয়ার জন্য ডাকছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তারা অনুরাগ কাশ্যপের বয়ান রেকর্ড করার জন্য তাকে ডাকল না। অভিযোগকারিনী ঘটনাস্থল চিহ্নিত করেছেন, যেখানে তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছিল। মেডিক্যাল টেস্টও করানো হয়েছে।

পায়েলের কথায়, অনুরাগ শান্তিতে বাড়িতে বসে রয়েছে। কিন্তু আমায় দৌড় করানো হচ্ছে। তাঁরা জানাচ্ছেন, মামলাটি রেজিস্টার করাতেই তাঁদের দুবার ঘোরানো হয়।

প্রসঙ্গত, অনুরাগ কাশ্যপ এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর ছবির অভিনেত্রীরাও তাঁর সমর্থনে সরব হয়েছেন। অভিনেত্রীদের মতে অনুরাগ এমন মানুষই নন।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।