মুম্বই: বলিউড জুড়ে চলছে নেপোটিজম বা স্বজনপোষণ ঘিরে বিতর্কের ঝড়। বলা ভালো মুম্বইয়ের টিনসেল টাউন দুটো ভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে। একদিকে রয়েছে স্টার কিডস। আর অন্যদিকে বাইরে থেকে এসে অভিনয়ের জগতে জায়গা করে নেওয়া অভিনেতারা। নেপোটিজম এর ধ্বজাধারী হিসেবে করন জোহরকে দেখছেন নেটিজেনরা। অন্যদিকে বহিরাগতদের প্রধান মুখ হিসেবে রয়েছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। এবার সেই কঙ্গনার নিশানায় পড়লেন অভিনেত্রী তাপসী পান্নু।

স্বজনপোষণ বিতর্ককে ঘিরেই তাপসীকে আক্রমণ করলেন কঙ্গনা। কঙ্গনার দাবি পুরস্কার এবং ছবিতে কাজ পাওয়ার জন্য তাপসী নাকি নেপোটিজম এর ধ্বজাধারী বা মুভি মাফিয়াদের তোষামোদ করে চলেন। সম্প্রতি নেপোটিজম নিয়ে তাপসীও কথা বলেছেন। বহু স্টারকিডদের জন্য তাঁরও বেশ কয়েকটি ছবি হাতছাড়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

কিন্তু ‘নাম শাবানা’ ছবি মুক্তির সময়ে কঙ্গনার প্রসঙ্গে তাপসী বলেছিলেন, “কাজ না পেলে সব সময় নেপোটিজমকে দায়ী করা ঠিক নয়।” তাপসীর এই মন্তব্য ঘিরে এক নেটিজেন টুইট করেছেন, “২০১৭-য় তাপশি কঙ্গনাকে আক্রমণ করতে ব্যস্ত ছিলেন এবং স্টারকিডদের হয়ে কথা বলছিলেন। আর এখন তিনি বহিরাগতদের হয় কথা বলে তাদের মসিহা হওয়ার চেষ্টা করছেন। যদিও তিনি বলতে পারেননি কোন স্টার কিডদের জন্য তিনি ছবি হারিয়ে ছিলেন।”

এই নেটিজেন এর মন্তব্য রি-টুইট করে কঙ্গনার টিম লিখেছে, “বহিরাগতদের আন্দোলন শুরু করেছিলেন কঙ্গনাই। বহু বহিরাগত সেই আন্দোলনকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। তারা সবসময় মুভি মাফিয়াদের নেক নজরে থাকতে চায়। কঙ্গনা রানাউতকে সরাসরি আক্রমণ করার জন্যই তারা ছবিতে কাজ পায় এবং পুরস্কার পায়। তাপসী পান্নু তোমার লজ্জা হওয়া উচিত। কঙ্গনার পোতা গাছের ফল খেয়ে ওকেই আক্রমণ করছো।”

নেপোটিজম ঘিরে বলিউডের এই বিতর্ক যে সহজে থামবে না তা এর থেকেই বোঝা যায়। এখন শুধু দেখার কোন দিকের জল কোন দিকে গড়ায়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ