মুম্বই: গত ৩০ এপ্রিল বলিউডকে অপূর্ণ করে চলে গিয়েছেন ঋষি কাপুর। তাঁর মৃত্যুতে এখনো শোকস্তব্ধ কাপুর পরিবার। মঙ্গলবার তার মৃত্যুর ১৩ দিন পর একটি স্মরণ সভা ছিল।

এই স্মরণ সভায় উপস্থিত ছিলেন বহু তারকারা। রণবীর কাপুর এবং আলিয়া ভাট সহ এদিন এসেছিলেন করিশমা কাপুর, রনধীর কাপুর, ববিতা, শ্বেতা বচ্চন, নভ্যা নভেলি নন্দা সহ আরো অনেকে। কিন্তু এরই মধ্যে একটি বিষয় রণবীর কাপুরের উপর বেশ ক্ষুব্ধ হয়েছেন নেটিজেনরা।

এদিন ঋষি কাপুরের স্মরণসভায় রণবীর আলিয়ার সঙ্গে প্রবেশ করেন। একসঙ্গে দুজন গাড়ি থেকে নামার সময় পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় ধরা পড়েন। আর এরপরই শুরু হয় বিতর্ক। নেটিজেনরা অভিযোগ করেন, এই কঠিন সময়ে রণবীর কেন তার মায়ের সঙ্গে থাকছেন না। যে মা তাকে সবসময় ভালবেসে এসেছেন তার সঙ্গে এখন না থেকে অন্য বাড়িতে কেন থাকছেন।

অনেকে রণবীরকে নিতু কাপুর এর সঙ্গে থাকার জন্য অনুরোধ করেন। অন্যদিকে মেয়ে ঋদ্ধিমা কাপুর দিল্লি থেকে মুম্বই পর্যন্ত গাড়িতে করে এসেছেন। মঙ্গলবার ঋষি কাপুরের ছবির সামনে দাঁড়িয়ে তিনি একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন। সেই ছবি মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে।

তবে শোকবিহ্বল সময় কাপুর পরিবারের সঙ্গে ছিলেন অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। রণবীরের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হওয়ার পরে কাপুর পরিবারের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে পড়েছেন আলিয়া। তাই ঋষি কাপুর এর মৃত্যুর পরে নিতু কাপুর এর পাশে সব সময় ছিলেন তিনি। কান্না থামছিল না তারও। কারণ গত দু’বছরে ঋষি কাপুরকে কখনো বন্ধু কখনও বাবা কখনও বাবার মতন দেখেছেন আলিয়া।

প্রসঙ্গত ২০১৮ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হন ঋষি কাপুর। তারপরে নিউ ইয়র্কে চিকিৎসার জন্য চলে যান তিনি। সঙ্গে গিয়েছিলেন তার স্ত্রী নিতু কাপুর। ঠিক এক বছর পর দেশে ফিরেছিলেন তিনি। কিন্তু ২৯ এপ্রিল সকালে হঠাৎই শরীর খারাপ করে ঋষির। তড়িঘড়ি তাকে ভর্তি করা হয় মুম্বইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে। আর পরের দিনই দুঃসংবাদ আসে। প্রয়াত হন অভিনেতা। বলিউডে তৎক্ষণাৎ নেমে আসে শোকের ছায়া। লকডাউন মেনেই শেষকৃত্য পালন হয় তার।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।