কলকাতা:  আইনিভাবে বিয়ের ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেতা দীপঙ্কর দে। শ্বাসকষ্টের সমস্যা প্রবল হওয়াতে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। তবে এখন অবস্থা অনেকটাই স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা। তবে অবস্থা স্থিতিশীল হলেও এখনই তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হচ্ছে না বলে জানা গিয়েছে। আরও কয়েকদিন অভিনেতাকে চিকিৎসকরা পর্যবেক্ষণে রাখবেন বলেই জানা গিয়েছে। তবে দীপঙ্কর দে’কে জেনারেল ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত করা হতে পারে। শারীরিক পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পরই সমস্ত সিদ্ধান্তই নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দীর্ঘদিনের সঙ্গী দোলন রায়কে বিয়ে করেন দীপঙ্কর দত্ত। দক্ষিণ কলকাতার এক রেস্তোরাঁয় আইনি বিবাহ সারেন তাঁরা। কাছের মানুষদের সাক্ষী রেখেই রেজিস্ট্রি করেন দোলন এবং দীপঙ্কর। একেবারে ছিমছাম করেই আইনত ভাবে বিয়ে সারেন দোলন এবং দীপঙ্কর দত্ত। এরপরেই শুক্রবার দুপুরে হঠাত করেই অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেতা। জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই সিওপিডির সমস্যা রয়েছে তাঁদের। ফলে প্রবল শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। অবস্থা এতটাই চিন্তায় ফেলে দেয় অভিনেতার আত্মীয়দের যে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে ভরতি করা হয়।

জানা যায়, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা বেশ থাকায় আইসিসিইউতে ভর্তি করা হয় অভিনেতা দীপঙ্কর দত্তকে। ইতিমধ্যে অভিনেতার চিকিৎসায় মেডিক্যাল টিম তৈরি করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টা চিকিৎসকরা অভিনেতাকে পর্যবেক্ষণে রাখেন। জানা গিয়েছে, ভয়ের কোনও কারণ নেই। অভিনেতার অবস্থা স্থিতিশীলই রয়েছে। তবে এখনই আইসিসিইউ থেকে অভিনেতাকে জেনারেল ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত করা হবে কিনা তা নির্ভর করছে বেশ কিছু রিপোর্টের উপরেই। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরেই বেশ কিছু পরীক্ষা করা হয়। সেই সমস্ত রিপোর্ট আসার পরেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত ডাক্তাররা নেবেন বলে জানা গিয়েছে।

তবে জানা গিয়েছে, অভিনেতার শরীর খারাপের পর থেকে সারারাত হাসপাতালেই বিনিন্দ্র রাত কাটিয়েছেন স্ত্রী দোলন রায়।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।