প্রতীকি ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, ব্যারাকপুর: গণধোলাইয়ের মুখে মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতিকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করলেন অভিযুক্ত৷ পরে গ্রামবাসীরাই পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে৷পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের নাম ভোলানাথ দাস (৫৫)। বাড়ি হালিশহর বলদেঘাটা অঞ্চলে। অভিযুক্ত হালিশহর পুরসভার কর্মী। স্বভাবতই ঘটনাটিকে ঘিরে এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, হালিশহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ঠাকুরপাড়া এলাকায় বাড়ি মানসিক ভারসাম্যহীন ওই যুবতির। বাড়িতে তাঁর বাবা ও মা যখন থাকতেন না, তখন মাঝেমধ্যেই অভিযুক্ত তাঁদের বাড়িতে যেত৷বেশ কিছু দিন ধরে ওই যুবতির শারীরিক আচরণে অস্বাভাবিকত্ব লক্ষ্য করা যায়। প্রতিবেশীরা ওই যুবতির মাকে ভোলানাথের আসার কথা জানায়৷

সন্দেহ হওয়ায় বুধবার রাতে অভিযুক্তকে চেপে ধরেন স্থানীয় কয়েকজন মহিলা। গণধোলাইয়ের মুখে অভিযুক্ত ধর্ষণের কথা স্বীকার করেন৷ এরপরই খবর পেয়ে পুলিশ ভোলানাথকে গ্রেফতার করে।