প্রতীকী ছবি৷

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: সিভিক ভলান্টিয়ারকে খুনের ঘটনায় দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের রায়পুর কাশিয়ারা এলাকায়৷ ধৃতরা হল ওই সিভিক ভলান্টিয়ারকের কাকা মোহন ঘোষ ওরফে বিপ্লব ও এক সুপারি কিলার৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ৪ ফেব্রুয়ারি ওই এলাকার বাসিন্দা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ খুন হয়েছিলেন৷ তিনি বর্ধমানের দেওয়ানদিঘী থানার সিভিক ভলান্টিয়ার ছিলেন৷ তাঁরই কাকা বিপ্লব তিন লক্ষ টাকা দিয়ে সুপারি কিলার নিয়োগ করেই ভাইপোকে খুন করান৷ অবশেষে পুলিশ মৃতের কাকা সহ এক সুপারি কিলারকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

কয়েকদিন আগেই তদন্তের প্রয়োজনে পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। এরপরই পুলিশ নিশ্চিত হয় রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে খুনের ঘটনায় কাকা মোহন ঘোষ তিন লক্ষ টাকার বিনিময়ে সুপারি কিলার নিয়োগ করে৷ এরপর পরিকল্পনামাফিক তাঁকে খুন করা হয়। গত ৪ ফেব্রুয়ারি রবীন্দ্রনাথের মৃতদেহ উদ্ধার হয় বর্ধমানের কাঞ্চননগর রথতলায় বাঁকা নদীর ব্রিজের তলা থেকে।

পুলিশ জানতে পারে, পরিকল্পনামাফিক রবীন্দ্রনাথ ঘোষের বন্ধু রাজু মুণ্ডা তাকে ফোন করে ডেকে পাঠায়। সেখানেই মানবেন্দ্র চাকি নামে এক ভাড়াটিয়া খুনিকে আগে থেকেই তৈরি করে রাখা হয়। মোটরসাইকেল নিয়ে সেখানে রবীন্দ্রনাথ ঘোষ পৌঁছালে তাকে মাথায় হাতুড়ি মেরে খুন করা হয়। পরে মৃতদেহ বাঁকা খালের ব্রিজের নিচে ফেলে রাখা হয়। তবে কি কারণে রবীন্দ্রনাথ বাবুকে খুন করা হয়েছিল তা এখনও পুলিশ জানতে পারেনি৷ ধৃত দুই অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ৷