নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: রাজ্য পুলিশ বিজেপির হয়ে কাজ করছে৷ এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ মুর্শিদাবাদের তৃণমূল প্রার্থী আবু তাহেরের৷ এদিন তৃতীয় দফার ভোটে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলার পরিস্থিতি৷ এক কংগ্রেস কর্মীর মৃত্যু হয়৷ তৃণমূল ও কংগ্রেসের সংঘর্ষের মাঝে পড়েই এই মৃত্যু বলে দাবি৷

তবে যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ সেই প্রেক্ষিতেই এদিন মুর্শিদাবাদের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আবু তাহের বলেন বিজেপিকে জেতাতে মরিয়া হয়ে পক্ষপাতিত্ব করছে রাজ্য পুলিশ৷ কিন্তু কেন তাদের এই ধরণের আচরণ তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল প্রার্থী৷

আরও পড়ুন : পুলিশ-তৃণমূল যোগসাজসেই টিয়ারুলের মৃত্যু: বিস্ফোরক আবু হেনা

তিনি বলেন রাজ্য পুলিশ রাজ্য সরকারের আওতাধীন৷ তা সত্বেও তাঁরা বিজেপির দাসত্ব করছে বলে তাঁর অভিযোগ৷ তিনি এদিন আরও বলেন তৃণমূলের সঙ্গে তীব্র অসহযোগিতা করতে দেখা গিয়েছে রাজ্য পুলিশকে৷ কোনও তৃণমূল কর্মীকেই দাঁড়াতে দেওয়া হয়নি৷ অথচ বিজেপি কর্মীরা বহাল তবিয়তে বুথের চারপাশে ঘুরে বেড়িয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর৷

উল্লেখ্য, তৃতীয় দফার ভোটের দুপুরে এক কংগ্রেস কর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে৷ এই ঘটনার খবর পেয়েই এলাকায় পৌঁছন মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী তথা কংগ্রেস নেতা আবু হেনা। তিনি জানিয়েছেন, ভোটে সন্ত্রাস ছড়াতেই তৃণমূল হামলা চালাচ্ছে। গোটা এলাকা জুড়ে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ তোলে কংগ্রেসের। যদিও তা অস্বীকার করে তৃণমূল। পালটা দাবি, কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দলের ফলেই এই ঘটনা।

আরও পড়ুন : মায়ের আত্মার শান্তি চাইলে তাঁর শ্রাদ্ধ করুন, জনগনের নয় : শতরূপ

ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়। ইতিমধ্যে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীও। কমিশনের আধিকারিকরাও যান ঘটনাস্থলে। এই বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট তলব করে নির্বাচন কমিশন। জেলা প্রশাসনের কাছে এই রিপোর্ট চাওয়া হয়৷

উল্লেখ্য মঙ্গলবার বেলা বাড়তেই একাধিক জায়গা থেকে আসতে শুরু করে অশান্তির খবর। বালুরঘাট, মুর্শিদাবাদ সহ একাধিক লোকসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসতে শুরু করেছে অশান্তির খবর। বুথ জ্যাম, ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ ওঠে শাসকদলের বিরুদ্ধে।