স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: আগামী লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে কংগ্রেস তৃণমূল জোট হবে কিনা তা এখনও বিশবাঁও জলে। বিজেপি বিরোধী ভোটকে একত্রিত করতে আগামী ১৯ তারিখ ব্রিগেড ভরো কর্মসূচি নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের বিজেপি বিরোধী বিভিন্ন দলের নেতৃত্ব উপস্থিত থাকবেন।

ঠিক তার আগেই কংগ্রেস তৃণমূল জোট নিয়ে মালদহের কোতোয়ালি ভবনে বাবা ও ছেলের মতানৈক্য দেখা দিল। একদিকে যখন দক্ষিণ মালদহের কংগ্রেস সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী (ডালু) আগামী লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের সঙ্গে জোট চাইছেন, সেখানে সম্পূর্ণ বিপরীত মত ডালুর ছেলে সুজাপুরের কংগ্রেস বিধায়ক ঈশা খান চৌধুরীর৷

ডালুর মত, কংগ্রেসের নিজেদের আসন ধরে রাখতে গেলে এই জোট জরুরি৷ তবে তা মানতে রাজী নন ঈশা৷ তিনি বলছেন গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে যেভাবে শাসকদল লুটপাট চালিয়েছে, তাতে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করলে সাধারণ কংগ্রেস কর্মী থেকে ভোটারদের মধ্যে ভুল বার্তা যাবে।

এই মতপার্থক্য নিয়েই আপাতত সরগরম মালদহের রাজনৈতিক মহল৷ কংগ্রেসের নিজের আসনগুলি ধরে রাখতে তৃণমূলের সাথে জোট নাকি একলা চলো নীতি, এবার কোন পথে হাঁটবে কংগ্রেস সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল৷ যদিও, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে ১০ নং জনপথ৷