স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বৃষ্টিস্নাত বারাসত স্টেডিয়ামে ৫-০ গোলে চার্চিল বধ করেছে সবুজ-মেরুন৷ কিন্তু চিন্তার বিষয় হল চোট৷ এই ম্যাচেই চোট পেয়ে ইউটা কিনোয়াকির কলারবোনে অস্ত্রোপচার করতে হয়েছে৷

অরিজিৎ বাগুই, সনি নর্ডি ও ক্রোমাও চোটে কাবু৷ কিন্তু সবুজ-মেরুন অধিনায়ক সনি নর্ডি আগামী ম্যাচ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী৷ আগামী বৃহস্পতিবার শিলং লাজংয়ের বিরুদ্ধে মাঠে নামতে হবে বাগানবাহিনীকে৷ তার আগেই চোট থেকে ফিরে শিলং ম্যাচে নামতে মুখিয়ে রয়েছেন নর্ডি৷

গতবার অল্পের জন্য ফসকে গিয়েছে আই লিগ ট্রফি৷ মাত্র এক পয়েন্টের জন্য৷ সেই আফসোস বোধহয় এখনও তাড়া করে বেড়ায় নর্ডিকে৷ তাই এবার আই লিগ ট্রফি বাগান শিবিরে তুলতে চান হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড৷ চার্চিল ম্যাচে চোট পাওয়ায় আগামী ম্যাচে সনি খেলতে পারবেন কিনা তা নিয়ে রয়েছে শংসয়৷ কিন্তু সনি শিলং ম্যাচে নিজেকে মেলে ধরার জন্য প্রস্তুত এখন থেকেই৷

বৃষ্টি চললেও গত রবিবার চার্চিলকে গোলের বোঝা চাপিয়ে নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছে নর্ডি, ডিকারা৷ খেলা যখন প্রায় শেষের দিকে ৮৪ মিনিটে গোল করেন অপ্রতিরোধ্য নর্ডি৷ কিন্তু সে সময়ই হাঁটুতে চোট পান তিনি৷ চোট পেলেও মাঠ ছাড়েননি সনি৷ চোটের উপরেই বাকি ছয় মিনিট খেলা চালিয়ে যান বাগান অধিনায়ক৷ এখানেই শেষ নয় জয় নিয়ে সনি মাঠ ছাড়েন খোঁড়াতে খোঁড়তে৷

কিনোয়াকির চোটের কারনে কমপক্ষে তাঁকে ২৫ দিন থাকতে হবে বিশ্রামে৷ কিন্তু চিকিৎসক সনিকে পরামর্শ দেন এক সপ্তাহ বিশ্রাম নেওয়ার জন্য৷ সনি নাছোড়বান্দা৷ তাঁর সাফ কথা, ‘চোট নিয়ে আমি এতটাও ভাবছি না৷ আশা করি আমি আগামী ম্যাচে খেলতে পারব৷’ সনির আত্মবিশ্বাস যেন তুঙ্গে৷ বৃহস্পতিবার কী হয় সেটাই এখন দেখার৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ