অটোয়া:   দীর্ঘদিন পর আরইউ-৪৮৬ ওষুধটিকে বৈধ বলে ঘোষণা করল কানাডার স্বাস্থ্য দফতর। ওষুধটি ‘অ্যাবরশন পিল’ বা গর্ভপাতের বড়ি হিসেবে অধিক পরিচিত।
২০১২ সাল থেকে কানাডায় ওষুধটি বৈধ করার প্রক্রিয়া ঝুলে ছিল বলে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা বিবিসি। ২০০০ সাল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ১৯৮৮ সাল থেকে ফ্রান্সে ওষুধটি ব্যবহার হয়ে আসছে। দীর্ঘদিন পর এধরণের ওষুধকে মান্যতা দেওয়ায় খুশি সেখানকার বহু মানুষ।
কানাডার স্বাস্থ্য দফতরের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে ‘ন্যাশনাল অ্যাবরশন ফেডারেশনের’ ভিকি সাপোর্ট জানিয়েছেন, “কানাডায় নারীদের জন্য এটি দারুণ খবর।” তবে, দেশের একাংশ এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বিক্ষোভে নেমেছেন।
খুব বেশি দেশে বৈধ না হলেও প্রায় ৬০টি দেশে ওষুধটি পাওয়া যায়। ব্রিটেন প্রায় ২৫ বছর ধরে মহিলারা এই ওষুধটি ব্যবহার করে আসছে। সাধারণত গর্ভধারণের ৭০ দিনের মধ্যে ওষুধটি  খেলে ফল পাওয়া যায়। তবে কানাডায় ওষুধটি কিনতে হলে চিকিৎসকের পরামর্শ প্রয়োজন হবে।
সাপর্টা বলেন, খুব সম্ভবত ২০১৬ সাল নাগাদ ওষুধটি কানাডায় সহজলভ্য হবে। তবে ওষুধের দোকানে নয় বরং চিকিৎসকদের প্রথমে এটি দেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, ১৯৮৮ সালে কানাডার সুপ্রিম কোর্ট গর্ভপাত আইনিভাবে বৈধ ঘোষণা করে।

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।