কলকাতা২৪x৭: ২০০৮ সালে বেজিংয়ে ভারতের হয়ে প্রথম ব্যক্তিগত শুটিংয় ইভেন্টে সোনা জিতেছিলেন বিন্দ্রা৷ তারপর কেটে গিয়েছে ১০টা বছর৷ মাঝের ২০১৬ সালে তুলে রেখেছেন বন্দুক৷ দেরাদুনে জন্ম নেওয়া পঞ্জাবের জিরাকপুরের বছর পয়ঁত্রিশের বাসিন্দা শনিবার টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেন যেখানে নিজের অলিম্পিকে সোনা জয়ের জার্নি এবং তার পেছনে থাকা পরিশ্রমের কথা বলে ভারতের অ্যাথলিটদের অলিম্পিকে সোনা জয়ের জন্য উৎসাহিত করেন৷

আরও পড়ুন:বাগান জার্সি খুলে রাখতে চলেছেন মেহতাব

২০০৮ সালে ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে সোনা ছাড়াও, ম্যাঞ্চেস্টার , মেলবোর্ন, গ্লাসগো কমনওয়েলথ গেমসের মত বড় ইভেন্টে মোট ছটি সোনার পদক জিতেছেন বিন্দ্রা৷ অর্জুন, রাজীব গান্ধি খেল রত্নের মত পুরস্কারে ভরেছে বিন্দার ওয়ার্ড্রোব৷ প্রাক্তন এই শুটার এবার টুইটারে নিজের পদক এবং পদক জয়ের জার্নির গল্প বলে অলিম্পিকে আরও সোনার পদক জেতার জন্য ভারতের অ্যাথলিটদের উৎসাহ দিলেন৷

আরও পড়ুন:স্ট্রাইকারের অভাব মাথাব্যথা ইস্টবেঙ্গলের, হাহাকার মুখ দেখতে চান না সুভাষ

তবে শুধু পুরস্কারই নয় শুটিং ছাড়ার পর ভবিষ্যতের শুটার তৈরির জন্য একাধিক সময়ে গুরুত্বপূর্ণ পদ পেয়েছেন অভিনব৷ একসঙ্গে দুটি গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন ভারতের এই অলিম্পিক সোনাজয়ী শুটার৷ শুটিংয়ে জাতীয় অবজার্ভার এবং টার্গেট অলিম্পিক পোডিয়ামের চেয়ারম্যান ছিলেন বিন্দ্রা৷ তবে নিজের ইন্সটিটিউটকে সময় দেওয়ার জন্য গত বছরের শেষে এই দু’টি পদ থেকেই সরে দাঁড়ান ভারতের কিংবদন্তি শুটার৷ অভিনব বিন্দ্রার বায়োপিক তৈরি করছে বলিউড৷ যে সিনেমাটিতে বিন্দ্রার চরিত্রে অভিনয় করবেন অনি কাপুরের ছেলে হর্ষ কাপুর৷

আরও পড়ুন:বিরাটকে টপকে গেলেন ইংল্যান্ড তারকা

নিজের জীবনের কিছু মুহূর্ত নিয়ে তৈরি ভিডিওটি টুইটারে পোস্ট করে বিন্দ্রা লেখেন, ‘ আমি আজ যে জায়াগাতে রয়েছি সেটা আপনাদের বানানো৷ এখন আরও লক্ষাধিক মানুষকে উৎসাহ দেওয়া প্রয়োজন৷ আমি ভারতের সমস্ত স্পোর্টসম্যানদের (ছেলে এবং মেয়ে) সমর্থন জানাচ্ছি যারা আগামী দিনে ভারতকে অলিম্পিক থেকে সোনা এনে দেবেন৷

আরও পড়ুন:অজানা চোটে বিরাটের পিঠে হাত, ভারতের মাথায় হাত