সুরাট: ওভারের প্রথম চার বলে হ্যাটট্রিক-সহ পর পর ৪টি উইকেট৷ এখানেই শেষ নয়, ওভারের শেষ বলে আবার ১টি উইকেট৷ মাঝে পঞ্চম বলে ১টি সিঙ্গল রান উপহার দেন প্রতিপক্ষ দলকে৷ সব মিলিয়ে এক ওভারে মাত্র ১ রান খরচ করে ৫টি উইকেট নেওয়ার বিরল কৃতিত্ব অর্জন করলেন টিম ইন্ডিয়ার কক্ষপথ থেকে ছিটকে যাওয়া কর্ণাটকী পেসার অভিমন্যু মিঠুন৷

আরও পড়ুন: ভারত সফরের দল ঘোষণা ওয়েস্ট ইন্ডিজের

সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-২০’র সেমিফাইনালে হরিয়াণার বিরুদ্ধে এমনই রেকর্ড গড়েন মিঠুন৷ ইনিংসের একেবারে শেষ ওভারে বল করতে এসে জাতীয় দলের হয়ে ৪টি টেস্ট ও ৫টি ওয়ান ডে খেলা অভিজ্ঞ পেসার ফিরিয়ে দেন হিমাংশু রানা, রাহুল তেওয়াটিয়া, সুমিত কুমার, আমিত মিশ্র ও জয়ন্ত যাদবকে৷

আরও পড়ুন: ২০২০ আইপিএল বিশ্বকাপ ভাগ্য নির্ধারণ করবে কুলদীপের, মত বাঙ্গারের

হিমাংশু, তেওয়াটিয়া ও সুমিতকে আউট করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন মিঠুন৷ চতুর্থ বলে মিশ্রকে আউট করে পর পর চার বলে চারটি উইকেট নেওয়ার নজির গড়েন তিনি৷ যদিও ম্যাচে নিজের প্রথম তিন ওভারে ৩৮ রান খরচ করেন অভিমন্যু৷  শেষ পর্যন্ত সেমিফাইনালে তাঁর বোলিং গড় দাঁড়ায় ৩৯/৫৷ ৪ ওভারে মোট ১০টি ডট বল করেন তিনি৷

আরও পড়ুন: আইপিএলে ভারতীয় কোচেদের অভাব প্রকট, হতাশ দ্রাবিড়

২০১০ সালে আহমেদাবাদে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে ম্যাচে আন্তর্জাতিক অভিষেক হয় মিঠুনের৷ ওই বছরই জুলাইয়ে গলে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টেস্ট ক্যাপ হাতে পান তিনি৷ ৪টি টেস্টে ৯টি উইকেট নেওয়া ছাড়াও ১২০ রান করেছেন মিঠুন৷ ৩টি ওয়ান ডে ম্যাচে নিয়েছেন ৩টি উইকেট এবং ব্যাট হাতে ৫১ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ