অভিমানে ঘর ছাড়া স্বামীর সন্ধানে একমাস পথে পথে ঘুরছেন স্ত্রী!

তমলুক: সামান্য মনোমালিন্যের পর থেকে রহস্যজনক ভাবে ঘর থেকে উধাও হয়ে যান স্বামী। দীর্ঘ একমাস ধরে তাঁর আর কোনও খোঁজ নেই। অগত্যা বাধ্য হয়ে স্বামীকে খুঁজতে বাড়ি ছেড়ে পথে পথে ঘুরছেন স্ত্রী।

পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরার আলমপুর গ্রামের বাসিন্দা কনক ঘোষ (৩৮) পেশায় একজন ফুল চাষি। পরিবারে রয়েছে স্ত্রী, দুই সন্তান, মা। মাস খানেক আগে স্ত্রীর সঙ্গে পারিবারিক বিষয় নিয়ে কিছু ঝামেলা হয় তাঁর। এরপরেই ওষুধ কিনতে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়ে যান কনকবাবু। তারপর থেকে তাঁর আর কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। বাধ্য হয়ে ডেবরা থানায় স্বামীর নিখোঁজ হওয়ার ডায়েরি করেন কনকবাবুর স্ত্রী পুতুল। কিন্তু পুলিশও কনকবাবুর কোনও খোঁজ দিতে পারেনি।

এই ঘটনার পর থেকে যারপরনাই মুষড়ে পড়েছেন কনকবাবুর স্ত্রী। তাঁর ওপর অভিমান করে কনকবাবুর এভাবে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার বিষয়টি কোনও ভাবেই মেনে নিতে পারেননি পুতুল দেবী। আর তাই তিনি পণ করেছেন স্বামীকে খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত নিজেও আর বাড়ি মুখো হবেন না। স্বামীর একটি পাসপোর্ট ছবি সঙ্গে নিয়ে তিনি ঘুরে চলেছেন রাস্তার অলিতে গলিতে। সম্প্রতি তিনি লোক মুখে খবর পেয়েছিলেন, পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাট থানা এলাকার কোনও জায়গায় থাকতে পারেন কনকবাবু। তাই দেরি না করে স্বামীর খোঁজে কোলাঘাটে হাজির পুতুল-দেবী। তাঁর কাতর মিনতি, অভিমান করে না থেকে যেন কনকবাবু দ্রুত বাড়ি ফিরে আসেন। স্বামীকে সঙ্গে না নিয়ে তিনি কোনওভাবেই আর বাড়ি ফিরবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন পুতলদেবী।