মুম্বই: পিতৃহারা অভয় দেওল৷ শনিবার সকালে মুম্বইয়ের এক হাসপাতালে পরলোকগমন করলেন তাঁর বাবা অজিত সিং দেওল৷ তিনি কিংবদন্তী ধর্মেন্দ্রর ছোট ভাই৷

গল ব্লাডারের অপারেশনের পর বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি৷ ভর্তি ছিলেন আইসিইউতে৷ধরম সাব নিয়মিত দেখতেও যেতেন ভাইকে৷ ওই হাসপাতালেই ভর্তি ছিলেন শওকত আজমি৷পাশাপাশি বেডেই ভর্তি ছিলেন তাঁরা৷  শওকতজিকে দেখতে আসতেন জাভেদ আখতারও৷ একদিকে ধরম সাব নিজে কৈফি আজমির কবিতা পড়ে  শোনাতেন৷ জাভেদজিকে দেখে খুসি হতেন অজিতও৷ কিন্তু সুস্থ হয়ে আর তাঁর ফেরা হল না৷ শনিবার সকাল ৬ টায় তিনি পরলোকগমন করেন৷

পাঞ্জাবি ছবির পাশাপাশি বেশ কিছু হিন্দি ছবিতেও অভিনয় করেছিলেন অজিত৷তাঁর মৃত্যুসংবাদে ভেঙে পড়েছেন ধর্মেন্দ্র৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।