লাহোর: পাকিস্তান জাতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার আব্দুল কাদিরের জীবনাবসান। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। এই খবর জানিয়েছেন তাঁর পুত্র।

সম্প্রতি অসুস্থই ছিলেন ৬৩ বছরের এই কিংবদন্তি ক্রিকেটার। তাঁকে লাহোরের হাসপাতালেই চিকিৎসা করানো হচ্ছিল। শুক্রবার হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি।

আব্দুল কাদিরের জন্ম ১৯৫৫ সালে৷ পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে একের পর এক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন তিনি৷ উপমহাদেশের মাটিতে ও বিভিন্ন দেশে তাঁর বোলিং প্রতিপক্ষ দলের কাছে ত্রাস হয়ে উঠত৷ অনবদ্য বোলিং কৌশলের কারণে ডান্সিং বোলার হিসেবে বিশ্বখ্যাত হন৷

পরে ভাষ্যকার এবং সম্প্রতি তিনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাচক ছিলেন তিনি। ১৯৭০ দশকের শেষ থেকে ১৯৮০ দশকে আব্দুল কাদিরের ক্রিকেটীয় নৈপুণ্য দেখে ক্রীড়ামোদীরা চমকে গিয়েছেন৷ বিশ্বের অন্যতম সেরা লেগ স্পিনারদের একজন হিসেবে তাকে গণ্য করা হতো। ছিলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

লাহোরে তাঁর প্রয়াণের সংবাদে পাক ক্রিকেট মহলে নেমে এসেছে শোকের ছায়া৷ আব্দুল কাদিরের পুত্র সলমন কাদির জানিয়েছেন, বাবার মৃত্যু সংবাদ জীবনে সব থেকে বড় ধাক্কা৷ আব্দুল কাদিরের প্রয়াণ সংবাদে শোক জানিয়েছে পাক সরকার৷ প্রাক্তন পাক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়ক তথা প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান শোক জ্ঞাপন করেছেন৷ দেশ বিদেশের প্রাক্তন ক্রিকেটাররা তাঁদের সময়ের অন্যতম ক্রিকেটারের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ৷

কিংবদন্তি পাক ক্রিকেটার ওয়াসিম আক্রম শোক জানিয়ে টুইটে লেখেন-

“They called him the magician for many reasons but when he looked at me in the eyes and told me that I was going to play for Pakistan for the next 20 years, I believed him. A magician, absolutely. A leg spinner and a trailblazer of his time.”

“You will be missed Abdul Qadir but never forgotten.” সত্যি করেই বল নিয়ে জাদু দেখাতেন আব্দুল কাদির৷ সেই জাদুর উত্তরসূরির তরফে এটাই শেষ শ্রদ্ধা৷

পাক ক্রিকেট বোর্ডের বার্তায় বলা হয়েছে- “The PCB is shocked at the news of ‘maestro’ Abdul Qadir’s passing and has offered its deepest condolences to his family and friends.”

পাক সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, আব্দুল কাদিরের প্রথম টেস্ট অভিষেক হয় ১৯৭৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে৷ আর ১৯৮৩ সালে তিনি নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ান ডে খেলেন৷ মোট ৬৭টি টেস্ট ও ১০৪টি ওয়ান ডে খেলেছেন এই পাক কিংবদন্তী ক্রিকেটার৷ ১৯৯৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সর্বশেষ ওয়ান ডে খেলেন তিনি৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও