নয়াদিল্লি: দিল্লির প্রাক্তন আইনমন্ত্রী সোমনাথ ভারতীর আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট৷ সোমবার সন্ধ্যে ছ’টার মধ্যে তাঁকে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দিয়েছে আদালত৷ এদিন শীর্ষ আদালত জানায়, ‘‘আপনি দায়িত্বশীল নাগরিক হলে, পালিয়ে যাবেন না৷ আগে আত্মসমর্পণ করুন, পরে আদালতে আসবেন৷’’

গ্রেফতারি এড়াতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আপ নেতা সোমনাথ ভারতী৷ কিন্তু এদিন তাঁর আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয় শীর্ষ আদালত৷ ভারতীয় বিরুদ্ধে নির্যাতন ও খুনের চেষ্টার মামলা দায়ের করেন তাঁর স্ত্রী লিপিকা মিত্র৷ ২০১০ সালে লিপিকার সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর৷ লিপিকার অভিযোগ, তাঁকে প্রাণে মারার চেষ্টা করেছিলেন সোমনাথ ভারতী৷ অন্তঃসত্ত্বা থাকার সময়, পোষা কুকুরকে দিয়ে আক্রমণ করিয়েছিলেন ভারতী৷

গত সপ্তাহে দুটি আদালতে খারিজ হয়ে যায় সোমনাথ ভারতীর আগাম জামিনের আবেদন৷ এর পরেও আত্মসমর্পণ না করে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি৷ তাঁর আচরণে অস্বস্তিতে পড়েছে দল৷ তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করার আবেদনও জানিয়েছেন বেশ কিছু নেতা৷

পুলিশ জানিয়েছে, একজন অপরাধীর মতো বারবার লোকেশন ও ফোন বদলে চলেছেন ৪১ বছরের এই আপ নেতা৷ এই কাজে বেশকিছু অপরাধীর মদত নিচ্ছেন তিনি৷

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

ভারতীর বিরুদ্ধে কেজরির বাসভবনে দলীয় নেতারা

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব