স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: চোর সন্দেহ করে এক যুবককে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক পেটায় গ্রামবাসীরা৷ সেই অপমানই সহ্য করতে পারেননি সেই যুবক৷ ঘটনার পর তিনি আত্মহত্যা করেন বলে অভিযোগ৷ ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের ভাতার থানার রাধানগর গ্রামে৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চুরির অপবাদ দিয়ে পেশায় খেতমজুর এক যুবককে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক মারধর করে গ্রামের লোকজন৷ ঘটনার পর অপমানে গলায় দড়ি আত্মহত্যাই করলেন সেই যুবক৷ মৃত যুবকের নাম সেখ আকবর আলি(৩২)৷

আরও পড়ুন: স্ত্রীকে খুন করে আত্মহত্যার চেষ্টা স্বামীর

মৃতের স্ত্রী রসুলা বেগম এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে ভাতার থানার বিজয়পুর গ্রামের ৭ জন বাসিন্দার বিরুদ্ধে ভাতার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন৷ যদিও এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ৷ রসুলা বেগম জানিয়েছেন, পরিবারের ৫ জন সদস্যের মধ্যে একমাত্র রোজগেরে ছিলেন তাঁর স্বামী৷

প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি গ্রামের একজনের বাড়ি থেকে ৪ হাজার টাকা চুরি যায়৷ পরের দিন ১৫ ফেব্রুয়ারি ভোরে বিজয়পুর গ্রামের ৭ জন যুবক এসে আকবর আলিকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ৷ গ্রামবাসীদের কাছ থেকে খবর আকবরের স্ত্রী জানতে পারেন, গ্রামের মসজিদের পাশে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে আকবর আলিকে বেধড়ক মারধর করা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: আগুনে পুড়ল বাড়ি, খড়ের পালুই

মৃত আকবরের স্ত্রী বলেন, “এরপরই আমরা বাড়ি থেকে ৪ হাজার টাকা নিয়ে গিয়ে গ্রামবাসীদের হাতে তুলে দিয়ে আমার স্বামীকে গ্রামবাসীদের হাত থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে আসি৷” তিনি জানান, তাঁর স্বামীকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসার কিছুক্ষণ পরই অভিযুক্তরা তাঁর বাড়িতে এসে জানিয়ে যান যে, যে টাকা চুরি গিয়েছিল সেই টাকা তাঁরা অন্য জায়গা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে৷ তাই রসুলা বেগমদের দেওয়া ৪ হাজার টাকা তাঁরা ফেরত দিতে চান৷ যদিও তার থেকে ৫০০ টাকা তাঁরা পিকনিক করার জন্য কেটে ৩৫০০ টাকা ফেরত দেন রসুলা বেগমকে৷

আরও পড়ুন: রাতের অন্ধকারে দুঃসাহসিক ডাকাতি সোনার দোকানে

একইসঙ্গে অভিযুক্তরা আকবর আলিকে মিথ্যা অপবাদে মারধর করার ঘটনায় ক্ষমাও চেয়ে যান৷ কিন্তু শেখ আকবর আলিকে মিথ‌্যা চুরির অপবাদ দেওয়ায় তিনি তা সহ্য করতে না পেরে এর কিছুক্ষণ পরেই ঘরে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে তাঁকে ভাতার গ্রামীণ হাসপাতাল এবং পরে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তাঁর মৃত্যু হয়৷

আরও পড়ুন: উড়ালপুলের দাবিতে রাস্তা অবরোধ, নাকাল নিত্যযাত্রীরা