শংকর দাস, বালুরঘাট: পরিবেশের সুরক্ষা ও সমাজের অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগে, অভিনব ভাবনায় বৌভাতের অনুষ্ঠান করলেন পতিরামের শিক্ষক দম্পতি। বালুরঘাট থানার অন্তর্গত আমতলী এলাকায় বাড়ি। পেশায় স্কুল শিক্ষক প্রতাপ কুন্ডু গত বুধবার মমি দাসকে বিয়ে করেন। শুক্রবার ছিল তাঁদের বউভাতের অনুষ্ঠান। জীবনের বহু প্রতীক্ষিত এই অনুষ্ঠানটি তাঁরা আর দশজনের চাইতে সম্পূর্ণ আলাদা ভাবেই পালনের মাধ্যমে নজির সৃষ্টি করলেন।

পতিরাম উৎসব ভবনে আয়োজিত হয় তাঁদের বৌভাতের অনুষ্ঠান। সেখানেই মুমুর্ষ মানুষের জন্য স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবিরের আয়োজন করেন তাঁরা। সেখানে বর বধূ দুজনেই রক্তদানও করেন। পতিরাম ও তার আশপাশের এলাকার একশো’রও বেশি দু:স্থ অসহায় মানুষকে বৌভাতে আমন্ত্রণ জানিয়ে তাঁদের ভুড়িভোজ করান। উপহার হিসেবে প্রত্যেকের হাতে নতুন বস্ত্র তুলে দেন তাঁরা।

শুধু তাই নয়, পরিবেশ দূষণ প্রতিরোধে গাছের চারাও বিতরণ করলেন তাঁরা। অভিনব কায়দায় নবদম্পতির বৌভাত অনুষ্ঠানের আয়োজনে খুশি সকলেই। এদিনে পতিরাম উৎসব ভবনে আয়োজিত, বৌভাতের মেনুতে ছিল মাছ মাংস ভাত ডাল পনির তরকারি মিষ্টি চাটনি।

আমন্ত্রিত সকলকে চেয়ার টেবিলে বসিয়ে ভুরিভোজ করান তাঁরা। শিক্ষক দম্পতির পাশে দাঁড়িয়ে তাঁদের ভাবনাকে সফল করতে অনুষ্ঠানে সামিল হয়েছিলেন পতিরামের স্বেচ্ছাসেবী উদ্যোগ সংগঠনের সদস্যরাও।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত জেলার বিশিষ্ঠ সমাজসেবী প্রদীপ সাহা জানিয়েছেন যে, অভিনব এই অনুষ্ঠানের সাক্ষী হতে পেরে তিনি নিজেও গর্বিত। সমাজ তথা পরিবেশের সেবার মাধ্যমে এই ভাবেও যে জীবনের বহু প্রতীক্ষিত মুহূর্তকে আরও আনন্দঘন করা যায়। তা সত্যিই নজির হয়ে থাকবে শিক্ষক দম্পতির এই ভাবনার মধ্য দিয়ে।