কলকাতা: হজ যাত্রায় নিয়ে যাওয়ার নামে ৬০ লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠল খাস কলকাতায়। প্রতারণার অভিযোগ দায়ের হয়েছে কলকাতার পার্কস্ট্রিটের আবদুল আহাদ টুর অ্যান্ড ট্র্যাভেলস প্রাইভেট লিমিটেড নামের একটি সংস্থার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, ওই সংস্থা ৬০ লাখ টাকা প্রতারণা করেছে হজে পাঠানোর নামে। ঘটনায় ওই ট্যুর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে পার্ক স্ট্রিট এবং জোড়াসাঁকো থানায়। পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন প্রতারিত মহম্মদ আরশাদ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রতারিত মহম্মদ আরশাদ নিজেও একটি ট্র্যাভেল এজেন্সির মালিক। তাঁর সংস্থার অফিস রয়েছে কলকাতার জোড়াসাঁকো থানার মদনমোহন বর্মন স্ট্রিটে। তাঁর অভিযোগ, গত ২০১৭ সাল থেকে তিনি এই ট্র্যাভেল এজেন্সির ব্যবসা করছেন। গত তিন বছরে বহু মানুষকে হজেও পাঠিয়েছেন। তাঁর এই ব্যবসার সুবাদেই আলাপ হয়,পার্কস্ট্রিটের আবদুল আহাদ টুর অ্যান্ড ট্র্যাভেলস কোম্পানির সঙ্গে।

ওই সংস্থা দাবি করে, বিগত দিনে তাঁরা বহু মানুষকে হজযাত্রার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। ফলে আরশাদ অনেককে লাখ লাখ টাকার বিনিময়ে ওই সংস্থার সঙ্গে হজে পাঠানোর পরিকল্পনা নেন। সেইজন্য বিভিন্ন মানুষের থেকে প্রায় ৬০ লাখ টাকা নিয়ে ওই সংস্থার অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেন। তারপরেই ঘটে বিপত্তি।

জানা গিয়েছে, আবদুল আহাদ টুর অ্যান্ড ট্র্যাভেলস কোম্পানিটি চালায় মহম্মদ খালেদ নামে এক ব্যক্তি। কিন্তু, তিনি হঠাৎ করেই মহম্মদ আরশাদের থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণ অস্বীকার করে যায়। তখনই চোখে অন্ধকার দেখতে শুরু করেন আরশাদ। এই বিষয়ে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি তিনি খালেদের অফিসে গিয়ে মেটাতে গেলেও কোনও সুরাহা হয়নি। ফলে কার্যত বাধ্য হয়েই মহম্মদ খালেদের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে প্রতারণার মামলা ঠোকেন আরশাদ। যদিও, এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পুলিশের তরফে কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।