মুম্বই: ২০০০ টাকার নোট সার্কুলেট করার ব্যাপারে নিয়ন্ত্রণ করতে বলা হচ্ছে বেশ কিছু রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কর্মীদের ৷ সিনিয়র ম্যানেজাররা ওই সব কর্মীদের বলেছেন, চেক মারফত গ্রাহকরা টাকা তুলতে এলে তখন যেন ২০০০টাকার নোট না দিতে এবং এটিএমেও ওই নোট জমা না করতে৷ বিজনেস ইনসাইডার-এর প্রতিবেদনে এমন কথাই বলা হয়েছে ৷

তবে এজন্য ব্যাংকের গ্রাহকদের আতংকিত হওয়ায় কোনও কারণ নেই যেহেতু তারা টাকা জমা করতে আসলে ২০০০টাকার নোট ব্যাংকের কাউন্টারে তা গ্রহণ করা হবে৷ আপাতত মৌখিক বলা হলেও কিছুদিনের মধ্যে এই বিষয়ে মেল আসবে বলে ওই প্রতিবেদনে জানান হয়েছে৷

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে ব্যাংক সূত্রে যার কাছ থেকে একথা জানা গিয়েছে তাঁর পরিচয় গোপন রাখা হচ্ছে কারণ তাঁর এই বিষয়ে কোন মন্তব্য করার এক্তিয়ার নেই ৷ তাদের বলা হচ্ছে এটিএমে ৫০০,২০০ এবং ১০০টাকার নোট ভরতে ৷ এজন্য ১০০টাকার নোট বাড়াতে বিশেষ উদ্যোগ করা হয়েছে ৷

যদিও কিছুদিন আগে জানান হয়েছিল দেশজুড়ে ২০০০টাকার নোট বহাল থাকবে ৷ এই বিষয়ে অবশ্য ঠিকমতো ব্যাখ্যা না পাওয়ায় একটা ধোঁয়াশা থেকে গিয়েছে ৷ ওই প্রতিবেদনে জানান হয়েছে এই বিষয়ে রিজার্ভ ব্যাংকের অভিমত জানতে চেয়েছে এবং সেখান থেকে উত্তর পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে ৷

এদিকে ওই প্রতিবেদনে বলা বয়েছে অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে এই সংবাদ মাধ্যমটি বেশ কয়েকটি ব্যাংকের কাউন্টার এবং এটিএম থেকে টাকা তোলে৷ তখন একটি এটিএম ছাড়া অন্য ব্যাংকগুলির কাউন্টার এবং এটিএম থেকে ২০০০টাকার নোট পায়নি৷