কলকাতা: এবারে টলিউড অভিনেতাদের বিলাসবহুল আবাসনে করোনার হানা। বাইপাসের ধারে এই আবাসনে থাকেন টলিউডের প্রথম সারির তারকারা। এই তারকাদের মধ্যে রয়েছেন রাজ চক্রবর্তী, শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়, অরিন্দম শীল, পায়েল সরকার।

এই অভিজাত আবাসনের এক বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি এই সময় হাসপাতালে ভর্তি। কিন্তু গোটা আবাসন জুড়ে এই ঘটনাকে ঘিরে প্রবল আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। কিছুদিন আগেই টলি তারকা জুটি রাজ ও শুভশ্রী জানিয়েছেন তাদের জীবনে এক নতুন প্রাণের সঞ্চার হতে চলেছে খুব শীঘ্রই। আর তার মধ্যেই আবাসনে করো না আক্রান্ত হওয়ার এই খবর যেন তাদের কাছে বিভীষিকার মতো হয়ে উঠেছে।

সংবাদমাধ্যমকে রাজ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, “আমার বাড়িতে এখন স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা। বয়স্ক বাবা-মা রয়েছেন। ভীষণ সচেতন থেকেও সেই করোনা ঢুকে পড়ল আবাসনের। যার জন্য ঢুকলো তিনি এখন হাসপাতালে। তিনি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠুন। কিন্তু তিনি সরকারি নিয়ম অগ্রাহ্য করে লকডাউনের সময় ও বাইরে বেরিয়ে ছিলেন। আর তার ফল ভুগতে হচ্ছে আমাদের।”

আবাসন কে স্যানিটাইজ করা হয়েছে। একই আবাসনে থাকেন পরিচালক অরিন্দম শীল। তিনিও জানিয়েছেন, “আবাসনে সচেতনতা বজায় রেখে ও এমন হলো কারণ তিনি রোজ বালিগঞ্জে যেতেন মিষ্টি কিনতে। ওর বাড়িতে বাইরে থেকে দুধওয়ালা আসত। ছেলেও কাজ করতে বের হতো। মানুষ যদি নিয়ম না মানে তাহলে যা হয় আর কি!”

অভিনেত্রী পায়েল সরকার বলছেন, “কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আমাদের আবাসনকে মুড়ে রাখা হয়েছিল। লক ডাউন যখন শেষের দিকে, তখনই আমাদের আবাসনে করোনা র খোঁজ মিলল। আমি নীচে সামান্য হাঁটতে বেরতাম। সেটাও আর হবে না।”

তারকাদের আবাসনে করোনা ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় গোটা টলি পাড়াই এখন দুশ্চিন্তায়।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।