গৃহস্থ বাড়িতে নানা কারণেই নারকেল রাখা হয়৷ কখনও খাবার তৈরির উপকরণ হিসেব, কখনও আবার পুজোর উপাচার হিসেবে ব্যবহার করা হয় নারকেল৷ সব মিলিয়ে নারকেল বাঙালি বাড়ির সব কাজেই লাগে৷ কিন্তু জানেন কি? এই নারকেলই ফিরিয়ে দিতে পারে আপনার সুদিন? বিশ্বাস না হলে পড়ে দেখুন হিন্দু জ্যোতিষ শাস্ত্র৷

হিন্দু জ্যোতিষ শাস্ত্র বলছে, নারকেলের সঠিক ব্যবহার যে কোনও ব্যক্তির ভাগ্য ফিরিয়ে দিতে পারে৷ কারণ এই নারকেল দুর্ভাগ্য থেকে মানুষকে রক্ষা করে বলে বর্ণিত রয়েছে৷ জেনে নিন, ঠিক কোন কোন ক্ষেত্রে নারকেলকে শুভফলদায়ক বলে মনে করা হয়৷

১৷ হিন্দু জ্যোতিষ শাস্ত্র বলছে প্রতি মঙ্গলবার আধ মিটার লাল কাপড় দিয়ে একটি নারকেলকে মুড়ে কোনও ব্যক্তির চারপাশে ঘোরান৷ তাহলেই অশুভ দৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা পাবেন ওই ব্যক্তি৷ শিশুদের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য৷

২৷ শনিগ্রহের কোপ থেকে রক্ষা পেতে প্রতি শনিবার একটা নারকেল গঙ্গাজলে ডুবিয়ে ‘ওঁ রামদূতায়ঃ নমঃ’ এই মন্ত্র সাত বার উচ্চারণ করতে হবে। এতে শনিদেবের কোপ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়৷

৩৷ আর্থিক সমস্যায় ভুগছেন? রক্ষা করবে নারকেল৷ প্রতি মঙ্গলবার হনুমান মন্দিরে একটি নারকেল নিয়ে যান৷ সেখানে হনুমান মূর্তির পা থেকে সিঁদুর নিয়ে সেই নারকেলে স্বস্তিকা চিহ্ন আঁকুন৷ ওই মন্দিরে বসেই পাঠ করুন হনুমান চল্লিশা৷ ৮ সপ্তাহ এই নিয়ম পালনে দূর হবে আর্থিক সংকট৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।