স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: জেলায় জেলায় রমরমিয়ে চলছে আইপিএলের বেটিং৷ বেটিং-এ জিতে কেউ হচ্ছে লাখপতি কেউ বা হেরে হচ্ছে আত্মঘাতী৷

আইপিএলের বেটিং-এ হেরে গিয়ে নিজের বাড়িতে বোনের ওড়নার ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হলেন এক যুবক৷ ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের কালনায়৷ মৃত যুবকের নাম শুভব্রত দাস৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে কালনা মহকুমা হসপিটালে ময়না তদন্তের জন্যে পাঠায়৷

আরও পড়ুন: মূক ও বধির যুবতীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত তৃণমূল কর্মী

মৃতের পরিবারের দাবি, বেটিংয়ের কারণেই আত্মঘাতী হয়েছেন শুভব্রত৷ কালনায় রমরমিয়ে চলছে বেটিং৷ কোনও হেলদোল নেই প্রশাসনের৷ উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগে ক্রিকেট বেটিং চক্রে জড়িয়ে সর্বশান্ত হয়ে আত্মঘাতী হয়েছিলেন নৈহাটির রামনগর এলাকার বাসিন্দা প্রদীপ দে (৫০)৷ তিনি রামনগর ও গরিফা এলাকার সক্রিয় তৃণমূল সমর্থক ছিলেন৷

প্রদীপ দে-র পরিবারের সূত্রে জানা গিয়েছিল, প্রদীপ তেমন কোনও কাজকর্ম করত না৷ যখন যেমন কাজ পেত তাই করতেন তিনি৷ আইপিএলের শুরুর দিন থেকেই বেটিং চক্রে টাকা লাগিয়েছিলেন তিনি৷ ঘরের জমানো টাকা ও বাইরে থেকে ঋণ নিয়ে বেটিং চক্রে মোটা টাকা জেতার আশায় টাকা লাগানো তাঁর নেশা ছিল৷

আরও পড়ুন: প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় আত্মহত্যা যুবকের

বর্তমানে বাজারে প্রচুর টাকা ধার হয়ে গিয়েছিল তাঁর৷ কিন্তু এবার বেটিং চক্রে টাকা লাগিয়ে হেরে যান তিনি৷ ঋণদাতারা তাঁকে টাকা মেটানোর জন্য চাপ সৃষ্টি করছিলেন বলে জানা গিয়েছে৷ সেই ঋণের দায়ে তিনি উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটির গরিফা রেল স্টেশন সংলগ্ন ৩ নম্বর পোলের কাছে ট্রেন লাইনে আপ নৈহাটি ব্যান্ডেল লোকালের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হয়৷