নয়াদিল্লি: মোদীর ডাকে সাড়া দিয়ে অন্ধকারে ডুবল ভার‍ত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, রবিবার ঠিক রাত ৯ টায় ৯ মিনিটের জন্য অন্ধকার করে দিতে হবে, অর্থাৎ বৈদ্যুতিক আলো নিভিয়ে দিতে হবে। আর সেই কথা রাখতেই গোটা ভারতে মোমবাতি, প্রদীপ জ্বালালেন সবাই। নিভিয়ে দিলেন ঘরের আলো। কেউ ওড়ালেন ফানুশ। অনেকে আবার ফ্ল্যাশাইটও জ্বালালেন। ঘরে ঘরে বাতি জ্বালিয়ে ঐজ্য প্রদর্শন করলেন দেশের মানুষ। ইতিমধ্যেই সেই ছবি প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে।

দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন বড় বড় শহরে সব আলো নিভে গিয়েছে। তার মধ্যে সামিল কলকাতাও। এখানকার মানুষও কেউ বারান্দার কেউ আবার ছাদে মোমবাতি জ্বালালেন।

অন্যদিকে, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, রাজনাথ সিং এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও প্রদীপ জ্বালিয়েছেন। কয়েকদিন আগে ভিডিও বার্তা দেন মোদী। আর সেই বার্তায় রবিবারের জন্য এক বিশেষ বার্তা দিয়েছিলেন।

এর আগে এরকমই এক রবিবার জনতা কার্ফুর দিন ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে তালি বাজিয়ে বা থালা বাজিয়ে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের উৎসাহিত করার কথা বলেছিলেন। আর এদিন বলেন, ৯ টায় ঘরের সব আলো নিভিয়ে জানালা বা ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে প্রদীপ জ্বালাতে হবে অথবা মোবাইলের ফ্ল্যাশলাইট জ্বালাতে হবে। এইভাবে দেশবাসীকে ঐক্যের বার্তা দিতে চেয়েছেন তিনি।

এদিন তিনি বলেন, ‘অনেকে হয়ত ভাবছেন আমার একার লড়াইতে কী হবে।’ আসলে যে কেউ একা নয়, গোটা দেশ একসঙ্গে লড়াই করছে সেই বার্তা দিতেই এম ন ঘোষণা করেছেন মোদী।