ফাইল ছবি

কলকাতা: লকডাউনে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিকর পোস্ট করায় রাজ্য পুলিশের হাতে গ্রেফতার ৯৬জন৷ এছাড়া লকডাউন উপেক্ষা করায় রবিবার কলকাতা পুলিশ ৬৩৮ জনকে গ্রেফতার করেছে৷ এবং ১০৭টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছে৷

রবিবার রাজ্য পুলিশ ট্যুইট করে জানিয়েছে,গত কয়েক সপ্তাহে ৯৬টি মামলায় ৯৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ এছাড়া ২৩০ জনকে জাল,আপত্তিকর বা হানিকর পোস্ট করবার জন্য সতর্ক করা হয়েছে৷ পাশাপাশি সেখানে লিখেছেন,দয়া করে অযাচাইকৃত,জাল,আপত্তিজনক বা হানিকর সামগ্রী পোস্ট বা ফরোয়ার্ড করবেন না৷

এপ্রিল মাসের গোড়ার দিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, অনেকে উস্কানিমূলক পোস্ট করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তারপরই পুলিশ আরও তৎপর হয়৷ এবং কয়েক সপ্তাহে ৯৬ জনকে গ্রেফতার করে৷

সোশ্যাল মিডিয়ায় সারাক্ষণ নজরদারি চালাচ্ছে কলকাতা পুলিশ ও রাজ্য পুলিশের সাইবার সেল। এর মধ্যে মহিলাদের কটূক্তি থেকে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়ানোর পোস্ট বা কমেন্ট দেখা গিয়েছে।

লকডাউনে মানুষকে ঘরে থাকতে বলা হচ্ছে৷ তা-সত্ত্বেও কিছু মানুষ বিনা প্রয়োজনে বাইরে বেরিয়ে আসছে৷ এবার তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করবে কলকাতা পুলিশ৷ তার জন্য ড্রোনের মাধ্যমে কড়া নজরদারি কলকাতা পুলিশের৷

কলকাতার বড়বাজার পোস্তা এলাকায় শনিবার ড্রোন ওড়িয়ে নজরদারি চলে৷ কালাকার স্ট্রিটের বিভিন্ন অলিগলিতে ড্রোন উড়িয়ে দেখা হচ্ছিল কোন কোন এলাকায় বেশি ভিড় হচ্ছে৷ এভাবে কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় ড্রোন উড়িয়ে চলবে নজরদারি৷ এমনটাই লালবাজার সূত্রে খবর৷

অভিযোগ, লকডাউন মানা হচ্ছে না রাজ্যের বেশ কিছু এলাকায়৷ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকও এই মর্মে চিঠি দিয়েছে নবান্নকে৷ তারপরই নাকি লকডাউনে নজরদারিতে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে কলকাতা পুলিশ৷ বাংলার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার যথেষ্ট কড়া নয় করোনার মোকাবিলায়। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় লকডাউনের মতো পরিস্থিতিতেও নিয়ম কানুন মানা হচ্ছে না। ফলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV