নয়াদিল্লি: স্নাতক বা গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি প্রতিটা ছাত্রের কাছে একটা স্বপ্ন। কেননা প্রতিটা ছাত্র ছাত্রীর শিক্ষার প্রাথমিক একটি ধাপ হল গ্র্যাজুয়েশন বা স্নাতক। অনেকটা ধাপ পেরিয়ে এসে তবে এই সম্মান যে কোন ছাত্র ছাত্রীদের অর্জন করতে হয়।

কিন্তু সেটা যখন হয় না আকর্ষণ টা তৈরি হয় সেখানেই। ৯ বছরের এক ছাত্র যার নাম লরেন্ত সাইমন্স হল সর্ব কনিষ্ঠ একজন যে মাত্র ৯ বছর বয়সে এই ডিগ্রির অধিকারী হল। এই ছাত্র ইন্দহোভেন ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। টেলিগ্রাফের একটি রিপোর্ট থেকে

জানা গিয়েছে, লরেন্তের আইকিউ লেভেল ১৪৫। যা তার বয়সী বাচ্চাদের থেকে অনেকটা বেশী। আর সেই কারণে সে তার স্কুল শেষ করেছিল মাত্র ১৮ মাসে। এছাড়াও জানান গিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সময়ে সেই ছিল সব থেকে ছোট সদস্য।

লরেন্তের পিতা আলেকজান্ডার সাইমন্স জানিয়েছেন,এই মেধাবী ছাত্র ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পিএইচডির প্রস্তুতের সঙ্গে সঙ্গে মেডিসিনে ডিগ্রি পাওয়ার জন্য প্রস্ততি নিচ্ছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, অনেক নামী বিশ্ববিদ্যালয় লরেন্তের ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে। সিএনএনকে জানিয়েছেন লরেন্তের যা ভাল লাগে তাই করে কোন রকম চাপ তারা দেয়নি।

টিইউই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এডুকেশানাল ডিরেক্টর জানিয়েছেন, লরেন্ত সব কিছু খুব তারাতারি শিখে নিতে পারে। চূড়ান্ত বুদ্ধিমান ছাত্র সে। লরেন্তের মা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন তার দাদু ঠাকুমাই প্রথম লক্ষ করেছিলেন যে লরেন্তের মধ্যে বিশেষ প্রতিভা রয়েছে। তারাই প্রথম বিশেষ কিছু লক্ষ করেছিলেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। লরেন্ত বিশ্বের সব থেকে কম বয়সী স্নাতক ডিগ্রি আগামী মাসে গ্র্যাজুয়েট হওয়ার সঙ্গে মাইকেল কেরনের থেকে নেবে। মাইকেল ১০ বছর বয়সে স্নাতক হয়েছিলেন।