নয়াদিল্লি: দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। এরমধ্যে সর্বাধিক খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্র ও দিল্লিতে। রাজধানী দিল্লিতে সোম্বারেও নতুন করে সংক্রামিত হলেন ২০৮৪ জন। যার ফলে মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়াল ৮৫,০০০।

জানা যাচ্ছে করোনার জেরে দিল্লিতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৬৮০। শেষ ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ৫৭ জনের। দিল্লির স্বাস্থ্য দফতরের একটি বুলেটিন অনুসারে, সোমবার দিল্লিতে কনটেন্ট জোনগুলির সংখ্যা পৌঁছেছে ৪৩৫ এ।

২৩ জুন দিল্লিতে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল সর্বাধিক। আক্রান্ত হয়েছিলেন ৩৯৪৭ জন। উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগেই করোনার বিচারে মুম্বইকেও পিছনে ফেলেছে দিল্লি।

অন্যদিকে করোনার ভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে প্রথম সাফল্যের মুখ দেখল ভারত। এবার ভারতের মানবদেহে ট্রায়াল শুরু হচ্ছে ভ্যাক্সিনের। ভারতীয় সংস্থা ‘ভারত বায়োটেক’ তৈরি করেছে করোনার ভ্যাক্সিন COVAXIN. সোমবার ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার তরফ থেকে এই ভ্যাক্সিনের মানব শরীরে ট্রায়ালের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

আইসিএমআর ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই ভ্যাক্সিন তৈরি করা হয়েছে। পুনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজিতে আলাদা করা হয়েছিল করোনা ভাইরাসের স্ট্রেন। আর তা দিয়েই চলছিল ভ্যাক্সিন তৈরির কাজ।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV