নয়াদিল্লি:  বড়সড় ধাক্কা কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের। কারণ সপ্তম বেতন কমিশনের জন্যে বকেয়া বর্ধিত বেতন না দেওয়ার পরিকল্পনা করছে মোদী সরকার। মন্ত্রিসভার সামনে শীঘ্রই এমন প্রস্তাব রাখবেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। এই খবরের সত্যতা স্বীকার করতে দেখা গিয়েছে সেন টাইমসে।

বর্ধিত বেতন সংক্রান্ত বকেয়া পাওনা বিশেষত নিচুতলার কর্মীদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, অরুণ জেটলি এমনই প্রস্তাব মন্ত্রিসভার সামনে এপ্রিলের প্রথমদিকে।

নয়া বিধি অনুসারে সরকারি কর্মীরা একেবারে সর্বনিম্ন বেতন দেওয়া হচ্ছে ১৮,০০০টাকা৷ সপ্তম পে কমিশন সুপারিশ অনুসারে ২০১৬ সালে জানুয়ারি থেকে বেতন ৭০০০টাকা থেকে বেড়ে ১৮,০০০টাকা হয়েছে এবং সর্বোচ্চ বেতন ৯০,০০০টাকা থেক বেড়ে আড়াই লক্ষ টাকা হয়েছে ৷ এই সুপারিশ ২০১৬ সালের ২৯জুন মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেয়৷

এবার যদি মন্ত্রিসভা বর্ধিত বেতন সংক্রান্ত বকেয়া না দেওয়ার কথা মন্ত্রিসভা অনুমোদন করে তবে সেটা সরকারি কর্মীদের কাছে বড়ই দুঃসংবাদ ৷ যদিও এক সরকারি কর্মী জানিয়েছেন, সরকার দায়বদ্ধ কর্মীদের অর্থমন্ত্রীর বর্ধিত বেতনের আশ্বাস যা এপ্রিল থেকে দেওয়া হবে ৷

প্রসঙ্গত, সরকারি কর্মীরা ন্যূনতম বেতন ১৮,০০০টাকা থেকে বাড়িয়ে ২৬,০০০টাকা করার দাবি করেছিল৷ শ্রমিক সংগঠন এই দাবিতে এক সময় অনিদিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয় এবং অর্থমন্ত্রীর কাছ থেকে আশ্বাস পেয়ে সেই ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ