ফাইল ছবি

এরনাকুলাম: দেশ জুড়ে একদিকে রাম মন্দির নিয়ে উচ্ছ্বাসের মধ্যেও সামনে এল এক ঘৃণ্য ঘটনা। তিন ব্যক্তির লালসার শিকার হলেন এক বৃদ্ধা মহিলা। জানা গিয়েছে ওই মহিলা বেশ কিছু মানসিক সমস্যাতে ভুগছিলেন। ঘটনাটি নিয়ে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

এছাড়া নির্যাতিতা ওই মহিলার গোপনাঙ্গেও আঘাত করা হয়েছে বলে ডাক্তারি রিপোর্টে জানা গিয়েছে। ওই ঘটনার পরেই নির্যাতিতা ওই বৃদ্ধাকে কলেঞ্চেরি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে দ্রুত এমারজেন্সি সার্জারি বিভাগে পাঠানো হয়েছে। ওই মহিলা আলাদা আলাদা ভাবে ডাক্তার এবং পুলিশের কাছে বিবরন দিয়েছেন। আর তারপরেই ওই মহিলার পরিবারের তরফে জানা যায় তিনি বিগত কিছুদিন ধরে মানসিক সমস্যাতে ভুগছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদের পরে পুলিশ অভিযুক্ত অমানা, তাঁর ছেলে মনজ এবং মহম্মদ সাফি নামের তিনজনকে গ্রেফতার করেছেন।

পুলিশের তরফে জানা গিয়েছে গত রবিবার ওই মহিলা অমানার বাড়ি গিয়েছিলেন। সেখানেই তাঁর ওপর নির্যাতন করা হয়। ওই ঘটনার পরে মহিলাকে নিজের বাড়িতে পাঠানো হয় কিন্তু রক্তপাত শুরু হওয়াতে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ডাক্তারের তরফে জানানো হয় ওই মহিলাকে ধর্ষণ করা হয়েছে পাশপাশি ধারালো কোন পদার্থ দিয়ে তাঁর গোপনাঙ্গেও আঘাত করা হয়েছে।

কেরলের মহিলা কমিশনের তরফে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। পাশপাশি স্বাস্থ্য মন্ত্রীর তরফে জানানো হয়েছে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া হবে প্রশাসনের তরফে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা