শ্রীনগর: আর্থিক সঙ্গতি না থাকার কারণে শিক্ষার আলো থেকে ক্রমশ দূরে সরে যাচ্ছে যে পড়ুয়ারা, তাদের পাশে এবার দাঁড়াল ভারতীয় সেনা৷ সোমবার জম্মু-কাশ্মীরের দরিদ্র পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে ছেলে-মেয়েদের শিক্ষার জন্য ১.৪৫ কোটি টাকা সাহায্য করল সেনা৷

সেনা কমান্ডার, নর্দার্ন কমান্ড, লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিং দারিদ্র সীমার নীচে থাকা ৭১ জন পড়ুয়ার শিক্ষার স্বার্থে এই অর্থ তুলে দেন৷ ‘সদ্ভাবনা’র আওতায় এই পরিমাণ অর্থের সঙ্গে স্কলারশিপও যুক্ত বলে জানান পিআরও ডিফেন্স৷

লেফটেন্যান্ট জেনারেল সিং জানান, সন্ত্রাসকবলিত এইসব স্থানে ‘Operation Sadbhavana’ সফল করতে সেনা সবধরণের সাহায্য করতে প্রস্তুত৷ শিক্ষার মাধ্যমে সমাজের মূলস্রোতে পড়ুয়াদের যুক্ত রাখতে সেনাবাহিনী তৎপর৷

কাশ্মীরে পহেলগামের একাদশ শ্রেণির পড়ুয়া আদেব-উল-ইসলাম জানায়, স্কুলে পড়াশোনা জীবনের প্রতি তার চিন্তাভাবনাকেই বদলে দিয়েছে৷ পেশা হিসেবে চিকিৎসাকে নিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে সে যুক্ত হতে চায় বলেও জানায়৷ আবার পুঞ্চের দশম শ্রেণির মাস্টার সুহেল জানায়, তার শিক্ষার জন্য ভারতীয় সেনা যা করেছে তার জন্য সে কৃতজ্ঞ৷

ব্রিগেডিয়ার নাগপাল জানান, ১৯৯৮ সাল থেকে ‘Operation Sadbhavana’-এর আওতায় বিভিন্ন ধরণের উদ্যোগকে বাস্তবায়িত করে চলেছে সেনা৷ বিশেষ করে জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসকবলিত প্রত্যন্ত স্থানগুলির সমস্যা সমাধানে তারা বারবার এগিয়ে এসেছে৷ তিনি আরও জানান, প্রতি বছর, ভারতীয় সেনা প্রায় ৪০ কোটি টাকা ব্যয় করে থাকে ‘Operation Sadbhavana’-এর আওতায় থাকা বিভিন্ন কাজ বাস্তবায়িত করার জন্য৷