ফাইল ছবি

জুনেয়ু: মাঝ আকাশে ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনা। দুটি বিমানের ধাক্কা লেগে মৃত্যু হয়েছে বেশ কয়েকজনের। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে আলাস্কার আংকোরাগে। অন্তত সাতজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে, যার মধ্যে একজন ল-মেকার ছিলেন বলেও জানা গিয়েছে।

আলাস্কার সোলদোতনা এয়ারপোর্টের কাছে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুটি বিমানের কেউ বেঁচে নেই। লিখিত বিবৃতিতে একথা জানিয়েছেন আলাস্কা স্টেট ট্রুপার।

আরও পড়ুন: বিজেপি ছেড়ে কেন তৃণমূলে ফিরলেন বিপ্লব মিত্র, কারণ জানালেন দিলীপ

একটি বিমানে একাই ছিলেন জনপ্রতিনিধি গ্যারি নোপ। তিনি নিজেই চালাচ্ছিলেন বিমানটি। আর একটি বিমানে ছিলেন বেশ কয়েকজন পর্যটক। পাইলট ছিলেন স্থানীয়, পর্যটকেরা ছিলেন সাউথ ক্যারোলিনার বাসিন্দা ও কানসাস থেকে ছিলেন একজন গাইড।

প্রত্যেকেরই ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে। একজনকে শুধু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তাঁর মৃত্যু হয়। হাইওয়ের উপর পড়ে ছিল বিমানের ভাঙা অংশ। আলাস্কার ফেডেরাল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন জানিয়েছে, এর মধ্যে একটি বিমান Havilland DHC-2 Beaver.

আরও পড়ুন: শনিবারের মধ্যে চিনা অ্যাপ টিকটক ব্যান করতে পারে আমেরিকা: ট্রাম্প

গ্যারি নোপ নামে ওই জনপ্রতিনিধি একজন রিপাবলিকান সদস্য। তাঁর মৃত্যুতে শোকবার্তা প্রকাশ করেছেন তাঁর সহকর্মীরা।

এর আগে এভাবেই মাঝ আকাশে দুর্ঘটনা ঘটেছে আলাস্কায়। ২০১৯ -এর মে মাসে একই রকম ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনায় ৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। যদিও সেইসময় ১০ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছিল।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।