প্রতীকী ছবি

কলকাতা:  ক্রমশ বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। গোটা দেশে মারণ এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে চার হাজারেও বেশি। দেশের প্রত্যেকটি রাজ্যে ক্রমশ বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বাংলাতেও।

আজ মঙ্গলবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্যে করোনায় মৃত ৫, আক্রান্ত ৬৯। আগে করোনায় তিনটি মৃত্যুর কথা বলা হয়েছিল। বিশেষজ্ঞদের পরীক্ষার পরে ৫টি মৃত্যুর খবর জানা গিয়েছে। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে দেওয়া বুলেটিনে দাবি করা হচ্ছে, রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯১। আদৌতে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কত তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে।

যদিও এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের ৭টি জায়গাকে করোনার হটস্পট বলে চিহ্নিত করল রাজ্য সরকার। যদিও কোন কোন এলাকাকে হটস্পট হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে তা খোলসা করে কিছু বলেননি মুখ্যমন্ত্রী। তবে জানা যাচ্ছে, কলকাতা, তেহট্ট, এগড়া সহ সাতটি জায়গাকে চিহ্নিত করা হয়েছে রাজ্যের তরফে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, গত কয়েকদিন আগেই রাজ্যে করোনা হটস্পট খুঁজে বার করার কাজ শুরু হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-এর নির্দেশ মেনে এই কাজ শুরু হয়।

কোথায় কোথায় সংক্রমণ মারাত্মক আকার নিতে পারে তা ডিজিট্যাল ম্যাপে চিহ্নিতকরণের কাজ চলছিল। আজ নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক চলাকালীন সেই ম্যাপ সাংবাদিকদের দেখান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সাতটি জায়গাকে হটস্পট হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের খবর, যে সব জায়গাকে হটস্পট হিসাবে ঘোষণা করা হবে সেখানে আইসিএমআরে’র সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে করোনার র‍্যাপিড টেস্ট করবে রাজ্য। একই সঙ্গে এই সমস্ত জায়গাগুলিকে আরও সতর্ক করা হবে।