নয়াদিল্লি: ‘দেশ কে গদ্দারো কো গোলি মারো…’ সম্প্রতি দিল্লিতে বারবার উঠেছে এই স্লোগান। এই ধরনের স্লোগানকে উস্কানিমূলক হিসেবে চিহ্নিত করা হলেও, এর আগে কাউকে এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়নি। অবশেষে ৬ জনকে এই স্লোগানের জন্য আটক করা হল।

শনিবার দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করেছে ৬ জনকে। যাদের মুখে শোনা গিয়েছে, ‘দেশ কে গদ্দারো কো, গোলি মারো শালো কো’ স্লোগান। দিল্লির রাজীব চক মেট্রো স্টেশনে এই স্লোগান শোনা গিয়েছে। আর তার জেরেই এই ছ’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ধৃতদের জেরা করছে পুলিশ। দিল্লি মেট্রোতে ট্রেনের ভিতরেও এরকম স্লোগান দিতে শোনা গিয়েছে। সংবাদসংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই যুবকদের গায়ে ছিল গেরুয়া ট-শার্ট। স্টেশনে ট্রেন এসে থামতেই তারা চীৎকার করতে শুরু করে। ট্রেন থেকে নেমেও তারা স্লোগান দিতে থাকে।

কিছু লোকজনও জুটে যায় তাদের সঙ্গে স্লোগান দিতে। কিছু লোকজন তাদের ভিডিও করতে শুরু করে। সিআইএসএফ জওয়ানরা তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ইতিমধ্যেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে গিয়েচে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

দিল্লি মেট্রোর আধিকারিক অনুজ দয়াল এই ঘটনার কথা জানিয়েছেন। দিল্লি মেট্রোর অপারেশন অ্যান্ড মেনটেনেন্স অ্যাক্ট অনুযায়ী, মেট্রো চত্বরের মধ্যে কোনও ধরনের বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করা যায় না।

এর আগে এই ধরনের মন্তব্য শোনা যায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের মুখে। খাস দেশের রাজধানীতে দাঁড়িয়ে একথা বলেছিলেন তিনি। কেন্দ্রীয়মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের এই স্লোগান ও জনতার উত্তরের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই চাঞ্চল্য তৈরি হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাহলে কী আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ার সওয়াল করছেন অনুরাগ ঠাকুর, এই প্রশ্ন তুলছেন নেটিজেনরা ও বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি।