ওয়াশিংটন: করোনার জেরে ভয়ঙ্কর অবস্থা মার্কিন মুলুকে। পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, গত সপ্তাহে আমেরিকায় ৬৬ লাখ মানুষ বেকার ভাতার দরখাস্ত করেছে। যার জেরে সহজেই অনুমেয়, করোনা কি ভয়ঙ্কর প্রভাব ফেলেছে মার্কিন মুলুকে।

বিশেষজ্ঞরা আগেই জানিয়েছিলেন, দেশজুড়ে বিপুল সংখ্যক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার ফলে, এছাড়াও বহু চাকরি যাওয়ার ফলে মার্চের ২৮ তারিখ বেকারত্ব বেড়ে হবে ৩০ থেকে ৬০ লক্ষ। সেই হিসেবই এবার মিলে গেল। মার্চের শেষে সংখ্যাটা ৬৬ লক্ষ।

গত বৃহস্পতিবার এ সম্পর্কিত একটি তথ্য প্রকাশ্যে আসে। জানা যাচ্ছে, গত ১৪ মার্চ থেকে ১৯ মার্চ পর্যন্ত আমেরিকায় ৩৩ লাখ মানুষ বেকার ভাতার দরখাস্ত করেছে। মার্কিন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এটি আমেরিকার ইতিহাসের সর্বকালীন রেকর্ড। অন্যদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখনও তাঁর মারণ কামড় অব্যহত রেখেছে করোনা। প্রত্যেক দিন কয়েকশো মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। ফলে আমেরিকার পরিণতি যে কি হবে, তা ভেবে এখনও আঁতকে উঠতে হচ্ছে।

বর্তমানে আমেরিকায় বাণিজ্যিক কাজকর্ম প্রায় সবই বন্ধ। মার্কিন মুলুকে সাধারণ মানুষের এক-পঞ্চমাংশ লকডাউনে রয়েছে। মোটরগাড়ি কোম্পানিগুলো কারখানা বন্ধ রয়েছে। এই বছর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেকারত্বের সংখ্যা ছিল সর্বনিম্ন, অথচ করোনার কারণে এখন তা ক্রমেই বাড়ছে।

অন্যদিকে আমেরিকান বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, করোনা মহামারির জেরে মৃতের সংখ্যা পৌঁছতে পারে ১০০,০০০ থেকে ২০০,০০০ নাগরিকের। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৪০০০ এরও বেশি লোক মারণ ভাইরাস করোনার বলি হয়েছেন। এছাড়াও প্রায় ১৯০,০০০ মানুষ এই ভাইরাসের কবলে পড়েছেন।

পারতপক্ষে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোভিড -১৯ এর মৃত্যুর সংখ্যা ছাপিয়ে গেছে চিনকেও। লাল চিনে মৃতের সংখ্যা এখনও চার হাজার ছোয়নি। কিন্তু ট্রাম্পের দেশ ইতিমধ্যেই পার করে ফেলেছে দেই মাপকাঠি। করোনা তাণ্ডব মার্কিন মুলুককে শেষ পর্যন্ত কোথায় নিয়ে দাঁড় করায় সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছে বিশ্ব।