দেবময় ঘোষ, কলকাতা: মঙ্গল-বুধবারের ট্রেড ইউনিয়নের ডাকা ধর্মঘটে কলকাতার একটি অংশের ‘অ্যাপ ক্যাব’ পরিষেবা বন্ধ হতে চলেছে৷ কিন্তু শহরবাসী স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারে এই ভেবে যে – মাত্রা ২৫০ থেকে ৩০০ অ্যাপ ক্যাব রাস্তায় চলবে না৷ কিন্তু তা বাদ দিয়ে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার অ্যাপ ক্যাব রাস্তায় চলবে৷

অন্যদিকে, ওলা-উবের সহ অন্যান্য সব অ্যাপ ক্যাব অপারেটর, মালিক এবং চালকরা রাজ্য সিআইটিএউ (সিটু)-এর সদর দপ্তর শ্রমিকভবনে সম্প্রতি বৈঠক করে ওলা-উবের অ্যাপ-ক্যাব ওনার্স অ্যান্ড ড্রাইভারস্ ইউনিয়ন তৈরি করেছ৷ সারা দেশে মঙ্গল-বুধবারে ট্রেড ইউনিয়ন ধর্মঘটে অ্যাপ ক্যাবের অপারেটর, মালিক এবং চালকরাও যোগ দিচ্ছেন, তা নিশ্চিত হয়েছে – এই দাবি করেছে সিটু৷ কলকাতায় এই ধর্মঘটের প্রভাবও পড়বে বলে দাবি সিটুর৷

সিটুর রাজ্য সভাপতি সুভাষ মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘কলকাতায় ২৫০ অ্যাপ ক্যাব বন্ধ থাকবে৷ এই গাড়িগুলির মধ্যে ওলা-উবের ছাড়াও অন্যান্য অ্যাপ ক্যাব রয়েছে৷ কলকাতায় হলুদ ট্যাক্সিরও একটা বড় অংশ চলবে না৷ আমাদের কর্মীরা রাস্তায় হাড়ি আটকাবে৷ শুধু মাত্র হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না৷’’

কিন্তু মদন মিত্র পরিচালিত জয়েন্ট ফোরাম অ্যাপ ক্যাপ অপারেটর জানিয়েছে, কলকাতার রাস্তায় সাড়ে ৫ হাজার ওলা-উবের চলবে৷ অফিস যাত্রা বা অন্যান্য পথযাচীদের কোনও অসুবিধা হবে না৷ জয়েন্ট ফোরামের সভাপতি মদন মিত্র৷ তার এই সংগঠনের ছাতার তলায় তিনটি সংগঠন করেছে – ১. অল ইন্ডিয়া অনলাইন ক্যাব অনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন, কলকাতা অ্যাপ ক্যাব অ্যাসোসিয়েন এবং ডাবলুবিসিইউজি৷

অল ইন্ডিয়া অনলাইন ক্যাব অনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন-এর সাধারণ সম্পাদক বিজনানি প্রামাণিক বলেন, ‘‘কলকাতায় সাড়ে পাঁচ হাজার অ্যাপ ক্যাব চলবে৷ বনধে শহরবাসীর চিন্তার কোনও কারণ নেই৷’’সিটুর অভিযোগ, অ্যাপ ক্যাবগুলি মূলত মোবাইল অ্যাপ বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ব্যবসা শুরু করছে৷ এই ব্যবসা করার জন্য তাদের কোনও মোটর ভেহিকেলস-এর দ্বারস্থ হতে হয় না৷ প্রয়োজন একটা অ্যাপ এবং সেটিকে চালানোর জন্য কিছু কর্মীর৷

যেকোনও কর্মী ওই ওয়েবসাইটে নিয়ে লগ-ইন করলে এবং গাড়ির সমস্ত কাগজপত্র জমা দিয়ে নিজেদের ওলা বা উবেরে নথীভুক্ত করতে পারবেন৷ যাত্রী ঠিক করে দেবে কোম্পানিই৷ তার জন্য বিপুল অঙ্কের কমিশনও নেবে ওলা-উবের৷ চালকদের অভিযোগ শুনে সিটু দাবি করেছে, গাড়ির চালক, অপারেটরদের ওলা-উবের কর্মী বলে মনে করে না৷ পোষাকি নাম রাখা হয়েছে ‘বিজনেস পার্টনার৷’অথচ এক তরফা ক্যাব কেয়ার ইনসেনটিভ, রুট-ম্যাপ কোম্পানি ঠিক করে৷ ড্রাইভার সব নিয়মকানুন তারাই বানায়৷ ‘পানের থেকে চুন খসলে’ – ড্রাইভারদের আই.ডি ব্লক করে দেওয়া হচ্ছে৷ এইসব কিছুর প্রতিবাদেই মঙ্গলবুধবার রাস্তায় নামবেন না ড্রাইভার৷