শ্রীনগরঃ  ফের ভয়াবহ জঙ্গি হামলা কাশ্মীরে। জঙ্গিদের গুলিতে মৃত্যু হল পাঁচ শ্রমিকদের। গুরুতর জখম আরও এক শ্রমিক। সবাই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার কাশ্মীরে কুলাগামে হঠাত করে শ্রমিকদের ক্যাম্পে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে জঙ্গিরা। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় এই পাঁচজনের। যদিও একজন পালিয়ে আসে। কিন্তু গুরুতর জখম হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আহত শ্রমিকের নাম জুহুরুদ্দিন বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। এই ঘটনার পরেই সেনাবাহিনীর তরফে সার্চ অপারেশন চালু হয়েছে। গোটা এলাকা কর্ডন করে দেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে, কাজের সূত্রে মুর্শিদাবাদ থেকে সবাই কাশ্মীরের কূলগামে কাজে যান। এদিন সন্ধ্যায় সশস্ত্র জঙ্গিরা কুলগামের কাতরাসু গ্রামে অতর্কিতে হামলা চালায় জঙ্গিরা। সেখানে যে ভাড়া বাড়িতে ওই শ্রমিকরা ছিলেন, সেখানে তারা হানা দেয়। বাড়ি থেকে ওই শ্রমিকদের বের করে এনে এলোপাথাড়ি গুলি চালায় জঙ্গিরা। জঙ্গিদের ছোঁড়া গুলিতে নিহত হয়েছেন ৫ শ্রমিক। জখম হয়েছেন আরও ১ জন। নিহত শ্রমিকরা সবাই বাংলার মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা হলেও এখনও পর্যন্ত আরও কিছু বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে যিনি আহত হয়েছেন, তাঁর নাম জহুরুদ্দিন বলে জানা গিয়েছে।

উপত্যকায় জঙ্গিদের টার্গেটে এখন কাশ্মীরি নন এমন বাসিন্দারা। গত দু-সপ্তাহের মধ্যে ৪ ট্রাকচালককে গুলি করে হত্যা করা হয়। পরে জানা যায় নিহতরা কেউই কাশ্মীরি নন। আপলে আনতে ট্রাক নিয়ে কাশ্মীরে গিয়েছিলেন। ফের একই ঘটনার পুনঃরাবৃত্তি। ফের একবার জঙ্গিদের নিশানায় কাশ্মীরিরা। পুলিশের মতে, বারবার কাশ্মীরের মানুষ নন এমন লোকজনদের উপর হামলা করে এলাকায় আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে। যাতে কেউ সেখানে না যায়। আর তা কিছুতেই হতে দেওয়া হবে না বলে পালটা হুঁশিয়ারি পুলিশের।