স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: হালিশহর পুরসভার কাউন্সিলরদের ডিগবাজি৷ বিজেপি ছেড়ে ফের পুরনো দলে ফিরলেন ৫ কাউন্সিলর৷ শাসক দলের নজরে হাতছাড়া হওয়া কাঁচড়াপাড়া পুরসভার পুনর্দখল৷

বাংলায় লোকসভা ভোটে গেরুয়া ঝড় দেখেছে রাজ্য৷ ২ থেকে বেড়ে তাদের আসন সংখ্যা এখন ১৮৷ পালের হাওয়ায় গা ভাসিয়ে জোড়াফুল শিবিরের বেশ কয়েকজন বিধায়ক, নেতাকেও দেখা গিয়েছে বিজেপিতে যোগ দিতে৷ অর্জুন-গড় বলে খ্যাত বারাকপুর, কাঁচড়াপাড়া, নৈহাটিতে তার প্রভাব সব চেয়ে বেশি৷ তৃণমূল ছাড়ার তালিকায় ২৮ মে নাম লেখান কাঁচড়াপাড়া, হালিশহরের মতো পুরসভার কাউন্সিলররাও৷ কাঁচড়াপাড়ার ২৪ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ১৯ জনই যোগ দেন বিজেপিতে৷

মুকুল-অর্জুনের মুখে হাসি ফুটিয়ে কাউন্সিলরদের দল বদলে বিজেপি শিবিরে জোর উল্লাস৷ মেয়াদের আগেই রাজ্য জয়ের সম্ভাবনার সুভাস পেতে শুরু করে পদ্ম শিবির৷ কিন্তু, অনাস্থা আটকে শাসকের কৌশলী পদক্ষেপে সেই সম্ভাবনা পিছিয়ে যায়৷ বৃহস্পতিবারের পর অবশ্য তকাতেও ইতি৷

হালিশহরের ধাঁচেই এদিন বিধানসভায় ফিরহাদ হাকিম, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ও সুজিত বসুর উপস্থিতিতে বিজেপি থেকে তৃণমূলে ফেরেন ৫ কাউন্সিলর৷ ফিরহাদ হাকিমের দাবি আরও ৩ দলত্যাগী কাউন্সিলরও আগামী কয়েকদিনের মধ্যে দলে ফিরবেন৷ ফলে কাঁচড়াপাড়া ফের দখল করতে পারবে রাজ্যের শাসক শিবির৷ ফিরহাদ হাকিমের কথায়, ‘‘ভয় দেখিয়ে তৃণমূল কাউন্সিলরদের বিজেপিতে যোগ দেওয়ানো হয়েছিল৷ এতে মুকুল ও অর্জুনের নম্বর বেড়েছে৷’’

এদিকে কাঁচড়াপাড়ার ছেলে বিজেপি নেতা মুকুল পুত্র শুভ্রাংশুর দাবি, ‘‘সময় অনেক রয়েছে৷ খেলা এখনও বাকি৷’’