বেজিং: ক্রমশ বাড়ছে মৃতের সংখ্যা৷ চিনে লেকিমা টাইফুনের হামলায় কম করে ৪৭ জন নিহত, এবং ২১ জন আহত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে৷ সোমবার ১২ অগস্ট পর্যন্ত এমনই তথ্য উঠে এসেছে৷ ট্রেন ও বিমান পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে, ১০ লক্ষেরও বেসি মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আছড়ে পড়ার সময় এর গতিবেগ ছিল ১৮৭ কিলোমটার প্রতি ঘণ্টা। এটি ছিল এই বছরের নবম সাইক্লোন। এর জেরে চিনের একটা বড় অংশে প্রবল বৃষ্টি হয়েছে।

চিনের এই শক্তিশালী সাইক্লোনে নাম লেকিমা। জরুরি বিভাগের সমস্ত কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। তৈরি রাখআ হয়েছে পর্যাপ্ত ত্রাণ।

উপকূলবর্তী শহর সাংহাইয়ের হাজার হাজার মানুষকে সরে যেতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইয়াংচি নদীর পূর্বাংশ এবং ইয়োলো নদীর তীববর্তী এলাকায় বন্যা সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। সতর্ক থাকতে বলা হয়েছিল জিয়াংশু ও শ্যানডং প্রদেশের বাসিন্দাদেরও। গভীর সমুদ্রে যে সমস্ত জাহাজ রয়েছে সেগুলিকে দ্রুত নিরাপদ জায়গাতে সরে যাওয়ার জন্যে নির্দেশও দিয়েছে প্রশাসন।