নয়াদিল্লি: দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ছাড়িয়েছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এরইমাঝে সীমান্ত রক্ষা বাহিনীতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৪৩ জন।

জানা গিয়েছে, শেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪৩টি করোনা সংক্রমণের ঘটনা সামনে এসেছে। বর্তমানে সীমান্ত রক্ষা বাহিনীতে (BSF) করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯১১ জন।

পাশাপাশি এও জানা গিয়েছে, এখনও অবধি ৬৩৩ জন সুস্থ হয়েছেন এবং হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলেই তথ্য পাওয়া গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, মেঘালয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন একজন সীমান্ত রক্ষা বাহিনী একজন। এই ঘটনায় রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ৪৮। জানা গিয়েছে বাহিনীর ঐ ব্যাক্তি বিহারের তাঁর বাড়ি থেকে জুনের ২৩ তারিখ ফিরেছেন।

সেইদিনের পরথেকেই তাঁকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। তাঁর সোয়াব স্যাম্পেল সংগ্রহ করে টেস্টের জন্য পাঠানো হয়। পরীক্ষার পর জানা যায়, ঐ ব্যাক্তি উপসর্গহীন এবং বর্তমানে তিনি বিএসএফ হাসপাতালের আইসোলেশনে রয়েছেন।

এই ঘটনার পর থেকে কারা ঐ ব্যাক্তির সংস্পর্শে এসেছেন তাঁদের খুঁজে বের করা হচ্ছে তবে তিনি কোনও সাধারণ মানুষের সংস্পর্শে আসেননি বলেই জানা গিয়েছে। মেঘালয়ে এই প্রথম সীমান্ত রক্ষা বাহিনীতে কোনও ব্যাক্তি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কলকাতায় এসেছিল কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল৷ আগেই সেই দলের পাইলট কারের চালক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন৷ এবার আরও ৫ বিএসএফ জওয়ানের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে থাকা পাইলট কারের চালক করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এরপরই তার সংস্পর্শে আসা ১৮ জন বিএসএফ জওয়ানের নমুনা পরীক্ষা করা হয়৷ মঙ্গলবার সেই রিপোর্ট আসতেই জানা যায়, আরও ৫ জন বিএসএফ জওয়ানের শরীরে মিলেছে করোনা জীবানু৷ অর্থাৎ তাদের রিপোর্ট পজিটিভ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ