মেলবোর্ন: জাতিস্মর? সে আবার হয় নাকি! কিন্তু চার বছরের বিলি যা বলছে, তা সত্যিই চমকে ওঠার মত।

অস্ট্রেলিয়ার টেলিভিশন প্রেজেন্টার ডেভিড ক্যাম্পবেল জানিয়েছেন তাঁর ছেলের কথা। তিনি নিজেই অবাক হয়ে যাচ্ছেন বিলির কথা শুনে। লেডি ডায়নার জীবনের কথা অবিকল বলে যাচ্ছে বিলি। তার দাবি সেই নাকি একসময় ছিল লেডি ডায়না।

লেডি ডায়নার অপঘাত মৃত্যুর কথা সবাই জানে। পাপারাৎজির তাড়ায় গাড়ি নিয়ে ছুটতে গিয়ে টানেলে ভয়াবহ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ব্রিটেনের রাজবধূর। অসাধারণ সুন্দরী ডায়নার ছবি ও তাঁর জীবনের একাকীত্বের গল্প আজও অনেকের মনে উজ্জ্বল।

অস্ট্রেলিয়ার টিভি সঞ্চালক ডেভিড ক্যাম্পবেলের দাবি, তাঁর ছেলে বিলি মাত্র দুই বছর বয়স থেকে নিজেকে প্রয়াত রাজকুমারি ডায়ানা বলে দাবি করতে থাকে। ডায়ানার জীবনের এমন কিছু ঘটনা সম্পর্কে সে খুঁটিনাটি বিবরণ দিতে শুরু করেছে, যা ওই বয়সি শিশুর পক্ষে জানা সম্ভব নয়। সবথেকে বড় কথা বাবা-মায়ের মুখে কোনোদিনই ডায়নার গল্প শোনেনি সে।

নিজের কলামে ক্যাম্পবেল জানিয়েছেন, দু’বছর বয়সে হঠাৎ ডায়নার ছবি দেখে আঙুল তুলে বিলি বলেছিল, ‘এটা আমি, যখন রাজকন্যা ছিলাম।’

ব্রিটিশ রাজপরিবার সম্পর্কে কিছু না জেনেই এরপর সে জানিয়েছিল, ‘জন’ নামে তার এক ভাই ছিল। এটা শোনার পর ডায়নার উইকিপিডিয়া ঘেঁটে দেখেন যে ডায়নার সত্যিই এক ভাই ছিল, যার নাম জন। যে তাঁর জন্মের আগেই মারা যায়। এছাড়া উইলিয়াম ও হ্যারি নামে নিজের দুই ছেলের কথাও জানায় বিলি। ছোট্ট ছেলের মুখে তার সন্তানদের কথা শুনতে বড়ই অদ্ভূত লাগত, জানিয়েছেন ক্যাম্পবেল।

এতেই শেষ নয়, জীবনে কখনও না দেখলেও ব্রিটিশ মহারানির প্রিয় নিবাস বলমোরাল প্রাসাদের বর্ণনাও হামেশাই দিতে শুরু করে বিলি। প্রাসাদের কারুকার্যে ‘ইউনিকর্ন’ রয়েছে বলেও জানায় ওই শিশু। উল্লেখ্য, স্কটল্যান্ডের জাতীয় প্রতীক এক শিংওয়ালা ঘোড়া ‘ইউনিকর্ন’ বালমোরাল প্রাসাদের স্থাপত্যের অংশ।

তবে সবচেয়ে আশ্চর্য হতে হয় যখন ডায়ানার মৃত্যুর মুহূর্ত সম্পর্কে বলতে থাকে বিলি। তার কথায়, ‘একদিন হঠাৎ সাইরেনরা হাজির হল। তারপর থেকেই আমি আর রাজকন্যা রইলাম না।’
বিলির কথা বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা হয়ত খোঁজা হবে, তবে আপাতত রাজবাড়ির সেই অভিশপ্ত স্মৃতি আরও একবার উস্কে দিচ্ছে বিলি।