নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করল মোদী সরকার। মৃতদের পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে। যারা করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা বা অন্যান্য কাজ করছেন, তাঁদের মৃত্যু হলেও টাকা দেবে সরকার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে এমনটাই জানানো হয়েছে।

ইতিমধ্যেই দেশে ৮৩ জনের শরীরে মিলেছে করোনা ভাইরাস। ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তে হয়ে দু’জনের মৃত্যুও হয়েছে। পরিস্থিতির বিচার করে শনিবার সন্ধেয় জরুরি বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আতঙ্ক বাড়াচ্ছে মারণ করোনা ভাইরাস। হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। ভারতেও আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করেছে মারণ এই ভাইরাস। পরিস্থিতির মোকাবিলায় একাধিক সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। শনিবার সন্ধেয় ক্যাবিনেট বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী। কীভাবে বর্তমান পরিস্থিতির মোকাবিলা করা হবে তা নিয়েই বৈঠকে আলোচনা হবে।

প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, কীভাবে মারণ করোনার সংক্রমণ এড়ানো যাবে সেই সম্পর্কে সাধারণ মানুষের সবরকম জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। এই পরিস্থিতিতে সবসময়ই ভিড় এড়িয়ে চলা উচিত বলেই মনে করছেন প্রধানমন্ত্রী। ভারতেও রীতিমতো আতঙ্ক তৈরি করেছে করোনা ভাইরাস।

করোনাভাইরাসের হামলায় বিশ্বজুড়ে ৫০০০ জনের বেশি মৃত। চিনেই মৃত তিন হাজারের বেশি, আর ইতালিতে সেই সংখ্যা ১০০০ পেরিয়েছে। এছাড়া ইরান ও অন্যান্য দেশ মিলিয়ে আরও মৃত্যুর পরিসংখ্যান আসছে। করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ লক্ষ ৩৫ হাজার। মৃত ও আক্রান্তের অধিকাংশই চিন, ইতালির বাসিন্দা। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে বুধবার বিশ্ব মহামারি হিসেবে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। কোনওভাবেই এই ভাইরাসের প্রতিষেধক বের করা যায়নি।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব