সুভাষ বৈদ্য,কলকাতা: কিছু বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে৷ এমনটাই দাবি নির্বাচন কমিশনের৷ কিন্তু বাস্তব বলছে অন্য কথা৷ তৃতীয় দফায় ভোটের বলি এক৷ আহত অনেক৷ তারমধ্যেই পাঁচ কেন্দ্রে ভোটের হার ছিল ৭৮.৯৭ শতাংশ৷

আরও পড়ুন: টিয়ারুলের মৃত্যু: কংগ্রেসের বিক্ষোভের মুখে পড়ে দায় এড়াল কমিশন

সপ্তদশ লোকসভা ভোটের তৃতীয় দফায় রাজ্যের ৫ আসন মালদহ উত্তর, দক্ষিণ, বালুরঘাট, মুর্শিদাবাদ, জঙ্গিপুরে ভোট হয়৷ নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী মঙ্গলবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত বালুরঘাটে ভোট পড়েছে ৮০.৯৩ শতাংশ৷ জঙ্গিপুর লোকসভা কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৭৮.৫৮ শতাংশ৷ মুর্শিদাবাদে ৮১.৪১ শতাংশ ভোট পড়েছে৷ মালদা উত্তর ও দক্ষিণ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে যথাক্রমে ৭৬.৪৩ এবং ৭৭.৪৫ শতাংশ।

আরও পড়ুন: রাজ্যে তৃতীয় দফার ভোট শান্তিপূর্ণ, দাবি অজয় নায়েকের

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ় আফতাব সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, রাজ্যের পাঁচটি কেন্দ্রের ভোটে যখন যেখান থেকে অভিযোগ এসেছে তখনই পদক্ষেপ করা হয়েছে৷ দুই একটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া এদিন ভোট শান্তিপূর্ণ ভাবেই হয়েছে৷ ভোট শুরুর পর পর কিছু ইভিএম বিকল হয়েছিল, তবে তার
সমাধান করে দেওয়া হয়েছে৷

আরও পড়ুন: ভোটপূর্ববর্তী পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বীরভূমে বিশেষ পর্যবেক্ষক

ভোটের বলি টিয়ারুলের মৃত্যুর ঘটনায় এদিন প্রদেশ কংগ্রেস রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখায়৷ তাদের দাবি, আবুল কালাম টিয়ারুল তাদের দলীয় কর্মী৷ তৃণমূলের দুস্কৃতীরা তাকে খুন করেছে৷ যদিও এই ঘটনার দায় ঝেড়ে ফেলেছে নির্বাচন কমিশন৷ কমিশনের সাফাই, ওই রাজনৈতিক সংঘর্ষ বুথের ভিতরে ঘটেনি, ফলে এর সঙ্গে ভোটের কোনও সম্পর্ক নেই৷