ঢাকা:  মোবাইল ইন্টারনেটের থ্রিজি ও ফোরজি পরিষেবা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। আজ শনিবার দুপুরের পর থেকে আগামীকাল রবিবার রাত ১২টা পর্যন্ত এই নেটওয়ার্ক বন্ধ রাখতে দেশের সব মোবাইল ফোন অপারেটরকে নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি। এই নির্দেশ পাওয়া মাত্র গোটা দেশে থ্রিজি এবং ফোরজি পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে মোবাইল সংস্থাগুলি। থ্রিজি ও ফোরজি পরিষেবা বন্ধের ফলে নতুন করে ফের টুজি পরিষেবা চালু হয়েছে দেশে।

টুজিতে টেক্সট পাঠানো ও গ্রহণ করা গেলেও ছবি ও ভিডিও পাঠানো সম্ভব হবে না। ফলে ইন্টারনেটের গতি কমে যাওয়ার কারণে সোশ্যাল মিডিয়াগুলি ব্যবহার করা কষ্টকর হয়ে যাবে।

ইন্টারনেট পরিষেবা সংস্থাগুলোর সংগঠন আইএসপিএবি’র সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা (আইএসপিএবি) ইন্টারনেটের বিষয়ে কোনও ধরনের নির্দেশ এখনও পাইনি। সেহেতু ধরে নিতে পারি ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট চালু থাকবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদেরটা (ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট) বন্ধ না হওয়াই উচিত। বন্ধ হলে ব্যবসায়িক এবং অফিসিয়াল যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এটা খোলা রাখলে সরকারের কোনও ক্ষতি হবে না বলে আমরা মনে করি।’

প্রসঙ্গত, সারাদেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ৬০ লাখ। এর আগে ২৭ ডিসেম্বর রাত ১০টা থেকে ২৮ ডিসেম্বর সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশের সব মোবাইল ফোনে থ্রিজি ও ফোরজি নেটওয়ার্ক বন্ধ রাখা হয়েছিল।