সুভীক কুন্ডু, কলকাতা ২৪x৭: বয়স শুধুই সংখ্যা মাত্র! রোনাল্ডোর ক্ষেত্রে শতাংশভাগ সত্যি৷ সেটা সবাই জানে৷ কিন্তু রোনাল্ডো যে পাকা রাঁধুনি, সেই খবর কজন রাখেন? কিংবা রোনাল্ডোর হিট সিনেমার সেরা চিত্রনাট্য লেখার ক্ষমতা রয়েছে, জানতেন কী!

বুধ মধ্যরাতের ম্যাচ দেখে অবশ্য সকালের চায়ের তুফানে আলোচনার বিষয়বস্তু একটাই! তুমি কেমন করে স্ক্রিপ্ট লেখো হে গুণি! যাঁকে নিয়ে এমন মন্তব্য তিনি বছরের সেরা কামব্যাকের সেরা চিত্রনাট্যটা আগের রাতে লিখে ফেলেছেন৷ প্রথম লেগে ০-২ পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় লেগে ৩-০’এ প্রত্যাবর্তন৷ সেটাও হ্যাটট্রিক করে একার কাঁধে বৈতরণী পার করে৷

আরও পড়ুন- বিদ্রুপ,অপমান, আঁতে ঘা আর রোনাল্ডো

পরিসংখ্যানের কচকচানিতে লেখা থাকবে জুভের জার্সিতে এটা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রোনাল্ডোর প্রথম হ্যাটট্রিক৷ কেরিয়ারের ওততম, আরও কত কী পরিসংখ্যান৷ হিট ছবির সব ডায়লগ সত্যিই কী আপনার মনে থাকে, যেটা থাকে সেটা ছবির বিশেষ দৃশ্যরূপ৷ মনের মণিকোঠায় জায়গা করে নেয় পছন্দের সিনেমায় বিশেষ কিছু সিন৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জুভেন্তাস-অ্যাটলেটিকোর ম্যাচ শেষে যেমনটা থেকে যাবে রোনাল্ডোর জোড়া হেড আর এক পেনাল্টি৷ সঙ্গে হাজারও অদেখা জেদ, হারের ঘৃণা আর বিন্দু বিন্দু পরিশ্রম৷ আর রাঁধুনী রোনাল্ডোর স্পেশাল মশলা! যে দলেই যান এক্সক্লিউসিভ সিক্রেট মশলায় জয়ের রেসিপি সাজিয়ে দেন৷

ফ্ল্যাশব্যাকে ম্যাচে ফিরে যাওয়া যাক৷ ম্যাচ সবে ২৭ মিনিট৷ তুরিনে রোনাল্ডোদের হোমগ্রাউন্ডে কান ফাটানো চিৎকার৷ গ্যালারির হাজার হাজার টুয়েলভ ম্যানেদের থেকে এনার্জি শুষে নিয়ে চোরাগোপ্তা অ্যাটলেটিকোর ডিফেন্স চিরে আক্রমণে ঝাঁঝ বাড়াচ্ছে জুভেন্তাস৷ দরজায় কড়া নাড়লেও রক্ষণ ভাঙা হচ্ছে না৷ ফ্যানেদের রক্তচাপের সূচক বাড়ার আগেই সেভিয়াররুপে প্রকট ‘সুপারম্যান’৷ ফেডেরিকোর বাড়ানো বাঁকানো শটে মাথা ঠেকিয়ে বল জালে ঠেলে দেন রোনাল্ডো৷ মূহুর্তে ম্যাচের স্কোরলাইন ১-০৷ দুই লেগ মিলিয়ে ব্যবধান ঘুছল এক গোলের৷

দ্বিতীয়টা দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর চার মিনিটে৷ এবারও হেডমাস্টার ক্রিশ্চিয়ানো৷ ক্রিকেটে ধোনির ক্ষিপ্রতা নিয়ে কোনও লেখক বই লেখার কথা ভাবলে, ফুটবলে রনের ক্ষিপ্রতাও দু’মলাটে আসা উচিত৷ ডিফেন্সে মাথার জটলা ভেদ করে ৪৯ মিনিটে রনের মাথায় গোঁত্তা খেয়ে পোস্টমুখে বল৷ বিপক্ষের সাবধানি গোলকিপার বল সেভ করলেন,যদিও তা গোললাইন পার করার পর৷ নিশ্চিত গোলে ব্যবধান ধুয়ে মুছে সাফ, দুই লেগের ফলাফল তখন ২-২৷

আর কফিনের শেষ পেরেক শেষ বাঁশির চার মিনিটে আগে৷ ৮৬ মিনিটে পোনাল্টি বক্সে ফাউল করে আত্মহত্যা অ্যাটলেটিকোর৷ এরপর সহজ পেনাল্টিতে রোনল্ডোর হ্যাটট্রিক৷ দুই লেগ মিলিয়ে ততক্ষণে এক গোলের লিড জুভের সিন্দুকে পুরে দিয়েছেন সওদাগর রোনাল্ডো৷ স্পেনে গিয়ে ০-২ হারে গ্যালারিতে রনের জন্য বিদ্রুপের আথিতেয়তা ছিল, এদিন পাল্টা গ্রিজম্যানদের ৩-০ হারিয়ে বাতাসে বদলার গন্ধ ছড়িয়ে দিলেন৷ সেই সঙ্গে দলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টারের টিকিট পাইয়ে দেওয়া৷  এত সবের পর কী রোনাল্ডোর হাতে সেরা চিত্রনাট্যাকারের অস্কার সম্মান উঠবে? ভক্তরা সেই আশা করতেই পারেন৷