রায়পুর: ছত্তিশগড়ের বস্তারে আত্মসর্মপণ করল ৩৩ জন মাওবাদী। মাওবাদীরা আত্মসমর্পণ করে জগদলপুর পুলিশের কাছে । অন্যদিকে বিজাপুর থেকে গ্রেফতার হয়েছে ২ মাওবাদী। এই ৩৩ জন মাওবাদীর মধ্যে ২৯ জন পুরুষ ও ৪ জন মেয়ে। শুক্রবার পুলিশের আইজি ও এসপির কাছে এই ৩৩ মাওবাদী আত্মসর্মপণ করে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই আত্মসমর্পণকারী মাওবাদীদের আর্থিক সহায়তা বাবদ পুলিশ–প্রশাসনের তরফ থেকে ১০ হাজার টাকা করে পুরস্কার দেওয়া হবে। এছাড়াও তাদের ৪৫ দিনের প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা করবে পুলিশ। আইজি সুন্দররাজ বলেন, “মানুষ বুঝতে পারছে মাওবাদীদের আসল চেহারা। তাছাড়া মাওবাদীদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়ার জন্য সহায়তা করবার কথাও দিয়েছে জেলা প্রশাসন।” পুলিশ ও প্রশাসনের এই আশ্বাস পেয়েই এই মাওবাদীরা শুক্রবার পুলিসের কাছে আত্মসর্মপণ করে বলে জানান আই. জি সুন্দররাজ।

তিনি আরও বলেন, “‌অপরাধ জগৎ ত্যাগ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য আমি ওদের স্বাগত জানাচ্ছি। মাওবাদীদের আসল চেহারা মানুষের সামনে আসুক। আমরা এই মাওবাদীদের সহায়তায় অন্য মাওবাদীদেরও স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করব।”‌ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে দারভা ও মারদুম অঞ্চলের কম্যান্ডার বিকাশের সঙ্গে এই ৩৩ জন মাওবাদী যুক্ত ছিল। ৩৩ জন মাওবাদীদের মধ্যে ৩ জনের বিনিময়ে ৩ লক্ষ টাকার পুরস্কার ঘোষণাও করা হয়েছিল। অন্যদিকে, বিজাপুরে গ্রেফতার হওয়া ২ মাওবাদীর বিরুদ্ধে খুন ও খুনের চেষ্টার মামলা রয়েছে। ছত্তিশগড়ের চ্যারেলির জঙ্গল থেকে পুলিশ ওই ২ মাওবাদীকে গ্রেফতার করে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ